শেকৃবিতে স্বল্পমূল্যে পোষা প্রাণির টীকাদান

IMG_3715প্রাণিকল্যান বিষয়ক সংগঠন ‘কেয়ার ফর পজ’ এর আনুষ্ঠানিক আত্মপ্রকাশ উপলক্ষ্যে সংগঠনটির সহযোগিতায় শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (শেকৃবি) এর মেডিসিন এন্ড পাবলিক হেলথ বিভাগ গত ০৫ ডিসেম্বর স্বল্পমূল্যে পোষা প্রাণির টীকাদান কর্মসূচী এবং ‘বাংলাদেশের সমাজ ও জনস্বাস্থ্যে বেওয়ারিশ পথচারী প্রাণির গুরুত্ব’ শীর্ষক একটি সিম্পোজিয়াম এর আয়োজন করে।

 

সকাল ১০ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শেখ কামাল অনুষদ ভবনস্থ মেডিসিন এন্ড পাবলিক হেলথ বিভাগে শেকৃবি’র মাননীয় উপাচার্য অধ্যাপক মোঃ শাদাত উল্লা, এনিম্যাল সায়েন্স এন্ড ভেটেরিনারি মেডিসিন অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মোঃ মোফাজ্জল হোসাইনসহ অনুষদের অন্যান্য শিক্ষকবৃন্দের উপস্থিতিতে স্বল্পমূল্যে পোষা প্রানির টীকাদান কর্মসূচীর শুভ উদ্বোধন করেন। বিকাল ৫ টা পর্যন্ত চলা এ কর্মসূচীতে আগত পোষা প্রাণিদের টীকা প্রদান করেন মেডিসিন এন্ড পাবলিক হেলথ বিভাগের চেয়ারম্যান ড. কে, বি, এম, সাইফুল ইসলাম।

 

এসময় এনিম্যাল সায়েন্স এন্ড ভেটেরিনারি মেডিসিন অনুষদের লেভেল-৪ সেমিস্টার-২ এর শিক্ষার্থীবৃন্দ টীকাদান কর্মসূচীতে অংশগ্রহণ করেন। টীকাদান কর্মসূচীর সমাপ্তিলগ্নে উপস্থিত হন আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন টিভি ব্যক্তিত্ব, চ্যানেল আই এর কৃষি বিষয়ক জনপ্রিয় অনুষ্ঠান ‘হৃদয়ে মাটি ও মানুষ’ এর উপস্থাপক শাইখ সিরাজ। তিনি এ উদ্যোগের ভূয়সী প্রশংসা করেন।

 

সন্ধ্যা ৬ টায় কৃষি অনুষদের সেমিনার কক্ষে শুরু হয় ‘বাংলাদেশের সমাজ ও জনস্বাস্থ্যে বেওয়ারিশ পথচারী প্রাণির গুরুত্ব’ শীর্ষক সিম্পোজিয়াম। প্রাণিকল্যান বিষয়ক সংগঠন ‘কেয়ার ফর পজ’ এর সহযোগিতায় শেকৃবি’র মেডিসিন এন্ড পাবলিক হেলথ বিভাগ যৌথভাবে সিম্পোজিয়ামটির আয়োজন করে। এনিম্যাল সায়েন্স এন্ড ভেটেরিনারি মেডিসিন অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মোঃ মোফাজ্জল হোসাইন এর সভাপতিত্বে সিম্পোজিয়ামে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শেকৃবি’র মাননীয় উপাচার্য অধ্যাপক মোঃ শাদাত উল্লা। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শেকৃবি’র মাননীয় উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ শহীদুর রশীদ ভুঁইয়া, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মোঃ হযরত আলী, সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এনিম্যাল সায়েন্স এন্ড ভেটেরিনারি মেডিসিন অনুষদের সাবেক ডিন এবং পরিচালক (গবেষণা) অধ্যাপক ড. মোঃ আনোয়ারুল হক বেগ।

 

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য প্রদান এবং মুল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন টীকাদান কর্মসূচী ও সিম্পোজিয়াম সমন্বয়ক মেডিসিন এন্ড পাবলিক হেলথ বিভাগের চেয়ারম্যান ড. কে, বি, এম, সাইফুল ইসলাম। মুল প্রবন্ধে বক্তা জানান বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার হিসাব মতে বিশ্বের মোট জনসংখ্যার শতকরা ১০ ভাগ কুকুর-বিড়াল আর এই কুকুর বিড়ালের শতকরা ৭০ ভাগেরও বেশি বেওয়ারিশ পথচারী। বাংলাদেশে বেওয়ারিশ কুকুর-বিড়ালের সঠিক কোন পরিসংখ্যান না থাকলেও এর সংখ্যা কুকুর-বিড়ালের মোট সংখ্যার শতকরা ৮০ ভাগেরও বেশি বেওয়ারিশ বলে ধারনা করা হয়।

 

বেওয়ারিশ পথচারী প্রাণী প্রানিবাহী বিভিন্ন রোগব্যাধির ধারক ও বাহক হিসেবে কাজ করে বিধায় বাংলাদেশের সমাজ ও জনস্বাস্থ্যে এদের গুরুত্ব অপরিসীম। সামাজিক ও জনস্বাস্থ্যে গুরুত্ব বিবেচনায় এসকল বেওয়ারিশ পথচারী প্রাণির সঠিক ব্যবস্থাপনা প্রয়োজন হলেও নির্বিচারে এসকল প্রানি হত্যা অমানবিক এবং প্রাণি-অধিকার ও প্রাণি-কল্যান পরিপন্থি। এমতাবস্থায়, মুল প্রবন্ধ উপস্থাপক ও সমন্বয়ক ড. কে, বি, এম, সাইফুল ইসলাম বেওয়ারিশ পথচারী প্রাণির সংখ্যা বৃদ্ধি রোধ কল্পে বিকল্প ব্যবস্থাসমুহ যেমন খোঁজাকরণ ও বন্ধ্যাত্বকরণ এর উপর গুরুত্ব আরোপ করেন।

 

সিম্পোজিয়ামে বক্তারা বাংলাদেশে পথচারী প্রাণির বর্তমান অবস্থান এবং দেশের সমাজ ও জনস্বাস্থ্যে তাদের গুরুত্ব তুলে ধরেন। বক্তারা বলেন, বেওয়ারিশ পথচারী প্রাণির মাধ্যমে জলাতঙ্কসহ বিভিন্ন রোগ ছড়ানোর আশঙ্কা থাকলেও এদের উপকারী দিকও কম নয়। রাস্তার ময়লা-আবর্জনা পরিষ্কার করতে এবং টিকটিকি, গিরগিটি ও ইদুরসহ আরও কিছু ক্ষতিকর প্রাণী দমনে এদের জুড়ি নেই। এছাড়া এরা রাত্রিকালীন এলাকার নিরাপত্তা নিশ্চিতে সর্বদা সজাগ থেকে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করে। সঠিক রক্ষণাবেক্ষণ ও প্রশিক্ষণ দেয়া হলে এসব প্রাণী সমাজ ও জনস্বাস্থ্যে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারবে।

 

অনুষ্ঠানে বক্তারা ঢাকাসহ সারা দেশে এসব প্রাণির সংরক্ষণ, নিরাপদ বাসস্থান ও প্রশিক্ষণের মাধ্যমে যথাযথ কাজে ব্যবহারের উপর বিশেষ গুরুত্ব আরোপ করেন এবং এব্যাপারে বাংলাদেশ সরকারসহ দেশের বেসরকারি বিভিন্ন সামাজিক ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনকে আহবান জানান।

 

পোষা প্রাণির টীকাদান কর্মসূচী এবং সিম্পোজিয়াম অনুষ্ঠানের মিডিয়া পার্টনার হিসেবে ছিল দেশের শীর্ষস্থানীয় ইংরেজি দৈনিক দ্য ডেইলি স্টার এবং রেডিও স্বাধীন ৯২.৪।

 

লেখাপড়া২৪.কম/শেকৃবি/পিআর/এমএএ-০৩১১

পছন্দের আরো পোস্ট