২২ কোটি টাকার করোনা ওয়েভার দিচ্ছে ড্যাফোডিল

নিজস্ব প্রতিবেদক।

করোনাকালীন সংকটময় পরিস্থিতিতে শিক্ষার্থীদের পাশে থাকার ও সহায়তা প্রদান করার লক্ষ্যে ২০ কোটি টাকার ‘বিশেষ করোনা ওয়েভার’ ঘোষণা করেছে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ মনে করে, নভেল করোনাভাইরাসের অব্যাহত সংক্রমন শিক্ষার্থীদের স্বাভাবিক জীবনকে ব্যাহত করছে।

পাশাপাশি অব্যাহত লকডাউনের ফলে বিশ্বজুড়ে ব্যবসা বাণিজ্য ও শিল্প কলকারখানায় যে অচলাবস্থা চলছে এই চ্যালেঞ্জিং সময়ে অভিভাবকরাও আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছেন যা শিক্ষার্থীদের উপর অতিরিক্ত মানসিক চাপ সৃষ্টি করবে। এই চাপ মোকাবেলার লক্ষ্যে এবং কোনো ধরনের আর্থিক সমস্যার কারণে শিক্ষার্থীদের শিক্ষাজীবন যাতে ব্যাহত না হয় সেই লক্ষ্যে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি শিক্ষার্থীদের পাশে থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এ জন্য বিশ্ববিদ্যালয়টি শিক্ষার্থীদের চলমান বৃত্তি বা ওয়েভারের সঙ্গে অতিরিক্ত বৃত্তি যুক্ত করবে।

শুধুমাত্র স্প্রিং-২০২১ সেমিস্টারে নিবন্ধনকৃত ব্যাচেলার ও মাস্টার্স প্রোগ্রামের শিক্ষার্থীরা এই ওয়েভার পাবেন। ওয়েভারটি স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক উভয় শিক্ষার্থীদের জন্য প্রযোজ্য হবে। এই মুহূর্তে যেসব শিক্ষার্থী কোনো না কোনো ওয়েভার পাচ্ছেন তারও এই ওয়েভারের জন্য যোগ্য বলে বিবেচিত হবেন এবং তাদের মূল ওয়েভারের সঙ্গে এই বিশেষ ওয়েভার যুক্ত হবে। তবে যেসব শিক্ষার্থী ৯১ শতাংশ থেকে ১০০ ভাগ ওয়েভার পাচ্ছেন তারা এই বিশেষ ওয়েভার সুবিধা প্রাপ্য হবেন না।

বিশেষ এই ওয়েভারের জন্য শিক্ষার্থীদেরকে অবশ্যই অনলাইনের মাধ্যমে আবেদন ফর্ম পূরণ করতে হবে এবং আবেদন করার আগে স্প্রিং-২০২১ সেমিস্টারে জন্য অবশ্যই নিবন্ধন সম্পন্ন করতে হবে। এছাড়াও শর্ত রয়েছে যে, ব্যাচেলর প্রোগ্রামের ট্রাইমেস্টারের শিক্ষার্থীদেরকে অন্তত ১২ ক্রেডিট এবং বাই সেমিস্টারের শিক্ষার্থীদেরকে ১৫ ক্রেডিট গ্রহণ করতে হবে। অপরদিকে মাস্টার্স প্রোগ্রামের ট্রাইমেস্টারের শিক্ষার্থীদেরকে ৯ ক্রেডিট এবং বাই সেমিস্টারের শিক্ষার্থীদেরকে ১২-১৩ ক্রেডিট গ্রহণ করতে হবে।

পছন্দের আরো পোস্ট