অধ্যাপক আবদুর রাজ্জাকের একক শিল্পকর্ম প্রদর্শনী শুরু

ধানমন্ডির গ্যালারী চিত্রকে খ্যাতিমান চিত্রশিল্পী অধ্যাপক আবদুর রাজ্জাকের একক শিল্পকর্ম প্রদর্শনী শুরু হয়েছে। গতকাল সন্ধ্যায় প্রদর্শনী উদ্বোধন করেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. ফারজানা ইসলাম ও শিল্পী অধ্যাপক রফিকুন নবী। উদ্বোধনী ভাষণে সংস্কৃতিমন্ত্রী বলেন, শিল্পী আবদুর রাজ্জাককে মানুষ ভুলে যায়নি। প্রকৃত শিল্পীর কখনও মৃত্যু হয় না। শিল্পী সৃজনশীলতার মধ্য দিয়ে বেঁচে থাকেন। আবদুর রাজ্জাকের শিল্পকর্মই তাঁকে চিরদিন বাঁচিয়ে রাখবে। এ প্রদর্শনীর মধ্য দিয়ে শিল্পী আবদুর রাজ্জাককে নতুন করে জানার সুযোগ ঘটেছে। সংস্কৃতিমন্ত্রী তাঁর ভাষণে আরো বলেন, শিল্পী আবদুর রাজ্জাক দেশপ্রেমিক ছিলেন। তিনি সুযোগ থাকা সত্ত্বেও বিদেশের মোহ ত্যাগ করে দেশে ফিরে এসেছিলেন। তাঁর শিল্পকর্মে এ দেশের জনমানব, সংস্কৃতি, পরিবেশ, প্রকৃতি, নগর ও গ্রামীণ জীবন-সংস্কৃতি ফুটে উঠেছে।

বিশেষ অতিথির ভাষণে অধ্যাপক ড. ফারজানা ইসলাম বলেন, শিল্পী আবদুর রাজ্জাকের শিল্পকর্মে তাঁর দেশ ও সমাজ নিয়ে ভাবনা ফুটে উঠেছে। আবদুর রাজ্জাকের অন্তর্মুখী স্বভাব তাঁর শিল্পকর্মকে আরো সমৃদ্ধ করেছে। শিল্পী রফিকুন নবী বলেন, দেশে এ যাবৎকালে শ্রেষ্ঠ শিল্পী হিসেবে যারা নিজেদের অবস্থান প্রতিষ্ঠা করেছেন তাদের অন্যতম হলেন আবদুর রাজ্জাক। এই প্রদর্শনীর মধ্য দিয়ে গ্যালারী চিত্রক শিল্পপ্রিয় মানুষকে সুযোগ করে দিল দেশের অন্যতম প্রধান শিল্পী আবদুর রাজ্জাকের শিল্পপাঠের। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন শিল্পী সৈয়দ জাহাঙ্গীর। এ সময় গ্যালারীর নির্বাহী পরিচালক মুনিরুজ্জামান ও আবদুর রাজ্জাকের পুত্র আসিফ আহমেদ উপস্থিত ছিলেন। স্বাগত বক্তব্য দেন শিল্পীপুত্র আসিফ আহমেদ। আসিফ আহমেদের সংগ্রহে থাকা আবদুর রাজ্জাকের (১৯৫১ থেকে শুরু করে ২০০৫ সাল পর্যন্ত) আঁকা চিত্রকর্ম ও ভাস্কর্য স্থান পেয়েছে প্রদর্শনীতে।

প্রদর্শনী উপলক্ষে একটি সুদৃশ্য ক্যাটালগ প্রকাশ করেছে গ্যালারী চিত্রক। ‘রাজ্জাক স্যার’ শিরোনামে রফিকুন নবী ও ‘আবদুর রাজ্জাক : বহুমাত্রিক’ শিরোনামে নিবন্ধ লিখেছেন মঈনুদ্দীন খালেদ। প্রদর্শনী চলবে ১৫ নভেম্বর পর্যন্ত। সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত।

পছন্দের আরো পোস্ট