রাবিতে দ্বিতীয় বার ভর্তি পরীক্ষার সুযোগ চায় ছাত্রজোট

রাবিরাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) দ্বিতীয় বার ভর্তি পরীক্ষার সুযোগ চেয়ে মোট তিন দফা দাবিতে উপাচার্য বরাবর স্মারকলিপি দিয়েছে প্রগতিশীল ছাত্রজোট। মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে তারা এ স্মারকলিপি প্রদান করে। তাদের অপর দাবি দুটি হলো, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম বর্ষের ভর্তি ফি কমানো এবং সকল প্রকার বর্ধিত ফি প্রত্যাহার করা।

 

গত ১৯ ডিসেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কাউন্সিলের সভায় সর্বসম্মতিক্রমে রাবিতে আগামী ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষ থেকে দ্বিতীয় ভর্তি পরীক্ষা দেওয়ার সুযোগ তুলে দেওয়া হয়। তবে এ বিষয়ে চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে বিশ্বিবিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট। ছাত্রজোটের স্মারকলিপিতে উল্লেখ করা হয়, এক দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে ভিন্ন ভিন্ন নিয়ম। বিশ্ববিদ্যালয়ে একবার ভর্তির সুযোগ উচ্চশিক্ষার পথকে বাধাগ্রস্থ করে। প্রতিবছর সাত লক্ষ শিক্ষার্থী বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে ভর্তি পরীক্ষা দেয়। কিন্তু সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে মাত্র ৪০ হাজার শিক্ষার্থীদের জায়গা দিতে পারে; যা একেবারের অপ্রতুল। তাই দ্বিতীয়বার ভর্তির সুযোগ বহাল রাখতে হবে।

 

স্মারকলিপিতে আরও উল্লেখ করা হয়, ভর্তি সংকট নিরসনে জন্য আরো বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা না করে ভর্তির সুযোগ বন্ধ করে ইউজিসি’র ২০ বছর মেয়াদি কৌশলপত্র বাস্তবায়নের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়গুলো উঠে পড়ে লেগেছে।

 

স্মারকলিপি প্রদানের সময় উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয় সমাতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের সভাপতি আলমগীর হোসেন সুজন, ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি মিনহাজুল আবেদীন, সাধারণ সম্পাদক সাইদুজ্জামান সুহান, ছাত্র ফেডারেশনের সভাপতি কিংশুক কিঞ্জল ও বিপ্লবী ছাত্রমৈত্রীর সভাপতি প্রদীপ মার্ডিসহ অনেকেই।

 

এর আগে বিশ্ববিদ্যালয় প্রগতশীল ছাত্রজোট ছাত্র ইউনিয়নের দলীয় টেন্ট থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করে। মিছিলটি প্রশাসন ভবনের সামনে গিয়ে শেষ হয়। পরে তারা সেখানে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করে।

 

লেখাপড়া২৪.কম/রাবি/তমাল/এমএএ-০৪৪৮

পছন্দের আরো পোস্ট