কুয়েটে ই-আইসিটি শীর্ষক আন্তর্জাতিক সম্মেলন শুরু

EICT-2015

খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে(কুয়েট) বৃহস্পতিবার তিন দিনব্যাপী ২য় “ইন্টারন্যাশনাল কনফারেন্স অন ইলেকট্রিক্যাল ইনফরমেশন এন্ড কমিউনিকেশন টেকনোলজি (ইআইসিটি-২০১৫)” শীর্ষক আন্তর্জাতিক কনফারেন্স শুরু হয়েছে।

 

তড়িৎ ও ইলেকট্রনিক (তওই) কৌশল অনুষদের আয়োজনে কুয়েট অডিটরিয়ামে সকাল ১০টায় কনফারেন্সটির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের (ইউজিসি) সদস্য প্রফেসর ড. ইউসুফ আলী মোল্লা এবং প্রধান পৃষ্ঠপোষক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আলমগীর। প্রফেসর ড. ইউসুফ আলী মোল্লা তার বক্তব্যে বলেন, তথ্য প্রযুক্তি এবং ইলেকট্রনিক্সের অগ্রযাত্রার জন্য ইআইসিটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। এই সম্মেলনের ধারণাসমূহ আমাদের বাস্তব জীবনে প্রয়োগ করা সম্ভব হলে কনফারেন্সটি সার্থকতা পাবে। প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আলমগীর বলেন, গবেষকদের গবেষনার প্রতি আরো সময় ও মনোযোগ দিতে হবে, তবেই দেশের উন্নয়ন সম্ভব। আগামী দিনের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলার জন্য গবেষনার কোন বিকল্প নেই।

 

আয়োজক কমিটির সভাপতি ও তওই কৌশল অনুষদের প্রফেসর ড. মোঃ নুরুন্নবী মোল্লার সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরো বক্তৃতা করেন আয়োজক কমিটির সম্পাদক ও কম্পিউটার সায়েন্স ও ইঞ্জিনিয়ারিং (সিএসই) বিভাগের প্রফেসর ড. কে.এম. আজহারুল হাসান।

 

উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে কী-নোট সেশনে পেপার উপস্থাপন করেন আইআইটি কানপুর এর প্রফেসর ড. ফাল্গুনী গুপ্ত এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর ড. সিদ্দিকী রব্বানী। তিন দিনব্যাপী সম্মেলনে বিশ্বের ১৩টি দেশ থেকে সাড়ে চার শতাধিক গবেষণা পেপার থেকে বাছাইকৃত ১১৫টি টেকনিক্যাল পেপার মোট ৩২টি টেকনিক্যাল সেশনে উপস্থাপন করা হবে এবং সেরা তিনটি পেপারকে পুরস্কৃত করা হবে। সম্মেলনে টেকনিক্যাল পেপার উপস্থাপন ছাড়াও সুন্দরবন ও মংলা পোর্ট পরিদর্শন এবং কনফারেন্স ডিনারের ব্যবস্থা থাকবে। সম্মেলনে দেশ-বিদেশী গবেষক, শিক্ষক, দেশের স্বনামধন্য প্রকৌশলী ও প্রযুক্তিবিদগণসহ অন্যান্যরা অংশগ্রহন করেন। #

 

 

লেখাপড়া২৪.কম/কুয়েট/পিআর/আরএইচ-৪৯০১

পছন্দের আরো পোস্ট