খুবিতে ডিনস্ অ্যাওয়ার্ড পেলেন যে ১৩ শিক্ষার্থী

খুবি প্রতিনিধি।

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের সামাজিক বিজ্ঞান স্কুলভুক্ত ৪টি ডিসিপ্লিনের ১৩ জন শিক্ষার্থীকে মেধার স্বীকৃতিস্বরূপ ডিনস্ অ্যাওয়ার্ড-২০২১ প্রদান করা হয়। আজ ৩ মার্চ বুধবার দুপুর ১২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য জগদীশচন্দ্র বসু একাডেমিক ভবনের সাংবাদিক লিয়াকত আলী মিলনায়তনে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে তাদেরকে ক্রেস্ট ও সম্মাননাপত্র তুলে দেওয়া হয়।

সামাজিক বিজ্ঞান স্কুলের ডিন প্রফেসর মোছাঃ তাছলিমা খাতুনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের রুটিন দায়িত্বে নিয়োজিত উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. মোসাম্মাৎ হোসনে আরা। প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি বলেন, শিক্ষাজীবন কিংবা কর্মজীবনে স্বীকৃতি পাওয়া সৌভাগ্যের বিষয়। যেকোন স্বীকৃতি জীবনকে এগিয়ে নিতে সাহায্য করে। আজকে যারা স্বীকৃতি পাচ্ছেন, তারা আগামী দিনের শিক্ষার্থীদের জন্য অনুপ্রেরণা যোগাবে। তিনি বলেন, মার্চ মাস আমাদের জাতীয় জীবনে উদ্দীপনার মাস। এ মাসে শিক্ষাজীবনে ভালো ফলের স্বীকৃতি পাওয়াটাও উদ্দীপনার বিষয়। কোনো পুরস্কার মুখ্য বিষয় নয়, তবে এটিকে অনুপ্রেরণা হিসেবে নিয়ে সাফল্যের চূড়ান্ত শিখরে পৌঁছাতে হবে। এই স্বীকৃতির মাধ্যমে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় এবং দেশকে গৌরবান্বিত করার দায়িত্ব শিক্ষার্থীদের।

বিশেষ অতিথি ছিলেন ট্রেজারার প্রফেসর সাধন রঞ্জন ঘোষ ও ছাত্র বিষয়ক পরিচালক প্রফেসর মোঃ শরীফ হাসান লিমন। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তৃতা করেন অর্থনীতি ডিসিপ্লিনের প্রধান প্রফেসর ড. মোঃ নাসিফ আহসান। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সমাজবিজ্ঞান ডিসিপ্লনের প্রফেসর ড. তুহিন রায় ও অর্থনীতি ডিসিপ্লিনের প্রভাষক ফাহমিদা আক্তার অনি। এর আগে সমবেত কণ্ঠে জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের শুরু হয়।

ডিনস্ অ্যাওয়ার্ডডিনস্ অ্যাওয়ার্ড পাওয়া শিক্ষার্থীরা হলেন

স্নাতকোত্তর পর্যায়ের অর্থনীতি ডিসিপ্লিনের ২০১৭-১৮ ব্যাচের শিক্ষার্থী সাবিনা আক্তার (প্রাপ্ত সিজিপিএ ৩.৯০), সমাজবিজ্ঞান ডিসিপ্লিনের ২০১৮-১৯ ব্যাচের শিক্ষার্থী মোঃ জাহিদুল ইসলাম (প্রাপ্ত সিজিপিএ ৩.৮৮), ডিভেলপমেন্ট স্টাডিজ ডিসিপ্লিনের ২০১৭-১৮ ব্যাচের শিক্ষার্থী সঞ্জু কর্মকার (প্রাপ্ত সিজিপিএ ৩.৯০), ডিভেলপমেন্ট স্টাডিজ ডিসিপ্লিনের ২০১৭-১৮ ব্যাচের শিক্ষার্থী সরদার আল ইমরান (প্রাপ্ত সিজিপিএ ৩.৯০), স্নাতক পর্যায়ের অর্থনীতি ডিসিপ্লিনের ২০১৪-১৫ ব্যাচের শিক্ষার্থী মুক্তা আক্তার (প্রাপ্ত সিজিপিএ ৩.৮৯), অর্থনীতি ডিসিপ্লিনের ২০১৫-১৬ ব্যাচের শিক্ষার্থী মোঃ কারিমুল ইসলাম (প্রাপ্ত সিজিপিএ ৩.৮৭), সমাজবিজ্ঞান ডিসিপ্লিনের ২০১৪-১৫ ব্যাচের শিক্ষার্থী জান্নাতুল ফেরদৌস কেয়া (প্রাপ্ত সিজিপিএ ৩.৬৫), সমাজবিজ্ঞান ডিসিপ্লিনের ২০১৫-১৬ ব্যাচের শিক্ষার্থী লুবাবা খান (প্রাপ্ত সিজিপিএ ৩.৭৮), সমাজবিজ্ঞান ডিসিপ্লিনের ২০১৫-১৬ ব্যাচের শিক্ষার্থী নিশানা আফরিন নিশু (প্রাপ্ত সিজিপিএ ৩.৭৮), ডিভেলপমেন্ট স্টাডিজ ডিসিপ্লিনের ২০১৪-১৫ ব্যাচের শিক্ষার্থী সাদিয়া আফরিন লিমা (প্রাপ্ত সিজিপিএ ৩.৮৫), ডিভেলপমেন্ট স্টাডিজ ডিসিপ্লিনের ২০১৪-১৫ ব্যাচের শিক্ষার্থী পিয়াল বণিক (প্রাপ্ত সিজিপিএ ৩.৮৫), ডিভেলপমেন্ট স্টাডিজ ডিসিপ্লিনের ২০১৫-১৬ ব্যাচের শিক্ষার্থী হালিমা খানম (প্রাপ্ত সিজিপিএ ৩.৯৩), গণযোগাযোগ এবং সাংবাদিকতা ডিসিপ্লিনের ২০১৫-১৬ ব্যাচের শিক্ষার্থী সুদিপ্ত দেবনাথ (প্রাপ্ত সিজিপিএ ৩.৯৪)।

অনুষ্ঠানে বিভিন্ন স্কুলের ডিন, ডিসিপ্লিন প্রধান, বিভাগীয় প্রধান এবং সংশ্লিষ্ট স্কুলের বিভিন্ন ডিসিপ্লিনের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীবৃন্দ এবং অ্যাওয়ার্ডপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের অভিভাবকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

পছন্দের আরো পোস্ট