রাবি সাংবাদিকতা বিভাগে সান্ধ্য মাস্টার্স কোর্সে ভর্তি

রাবি প্রতিনিধি।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগে এক ও দুই বছর মেয়াদি সান্ধ্য মাস্টার্স কোর্সে (জানুয়ারি ২০২১) ভর্তিপ্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। দেশ-বিদেশের যেকোনো বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ন্যূনতম স্নাতক (সম্মান অথবা পাস) ডিগ্রিপ্রাপ্তরা দুই বছর মেয়াদী কোর্সে ভর্তির জন্য আবেদন করতে পারবেন। আর যেকোনো বিশ্ববিদ্যালয় যোগাযোগ, সাংবাদকিতা ও গণমাধ্যম সংক্রান্ত বিষয়ে স্নাতক ডিগ্রিপ্রাপ্তরা এক বছর মেয়াদী কোর্সে আবেদন করতে পারবেন।

৩ মার্চ ২০২১-এর মধ্যে আবেদনপত্র সংগ্রহ ও জমা দিতে হবে। ৫ মার্চ ২০২১ থেকে ক্লাস শুরু হবে। গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অফিস থেকে সকাল ১০টা থেকে দুপুর ২টার মধ্যে ৫০০ টাকার বিনিময়ে আবেদনপত্র সংগ্রহ করে জমা দেওয়া যাবে। এই কোর্সে আসনসংখ্যা ৫০টি। দুই বছর মেয়াদী কোর্সের জন্য চার কিস্তিতে মোট এক লাখ টাকা এবং এক বছর মেয়াদী কোর্সের জন্য দুই কিস্তিতে মোট ৬০ হাজার টাকা কোর্স ফি প্রদান করতে হবে। ভর্তি সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য জানতে বিভাগে যোগাযোগ করা যেতে পারে (অফিসের ফোন: ০৭২১-৭৬১১১৩৬, মোবাইল ফোন: ০১৭১২১৪০৭৭২, ০১৭১৬৬৭২৮৮৪)।

বর্তমানে তথ্যপ্রযুক্তির উৎকর্ষের যুগে গণমাধ্যম খুব শক্তিশালী হাতিয়ার। সাম্প্রতিককালে দেশে গণমাধ্যমের ব্যাপক বিস্তার ঘটেছে। দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে এখন প্রিন্ট ও অনলাইন সংবাদপত্র প্রকাশিত হচ্ছে। ইতিমধ্যেই ত্রিশের অধিক স্যাটেলাইট টেলিভিশন চালু রয়েছে। আরও কিছু স্যাটেলাইট টেলিভিশন চালু হতে যাচ্ছে। বেশ কয়েকটি এফএম রেডিও চালু হয়েছে, ১৮টি কমিউনিটি রেডিওর সম্প্রচারও চলছে। আরও কিছু কমিউনিটি রেডিওর সম্প্রচারও হতে যাচ্ছে।

এসব গণমাধ্যমের মূল আকর্ষণ সংবাদ। আর এতগুলো গণমাধ্যমের সংবাদ সংগ্রহের জন্য প্রচুর প্রশিক্ষিত সাংবাদিক ও গণমাধ্যমকর্মী প্রয়োজন। কিন্তু আমাদের দেশে এখনো জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় বা কলেজ পর্যায়ে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগটি চালু হয়নি। এমনকি দেশের সবকটি পাবলিক বা প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়েও এখন পর্যন্ত এই বিভাগ প্রতিষ্ঠিত হয়নি। তাই এসব গণমাধ্যম চালুর সময় কর্তৃপক্ষ প্রশিক্ষিত সাংবাদিক ও গণমাধ্যমকর্মীর দারুণ অভাব বোধ করে থাকেন।

প্রশিক্ষিত জনবল তৈরি করা গেলে বেকার জনগোষ্ঠীর একটি বড় অংশের এ খাতে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা সম্ভব। বিশেষ করে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের ডিগ্রিপ্রাপ্তরা শুধু সংবাদপত্র, রেডিও, টেলিভিশন, ম্যাগাজিন, অনলাইন সাংবাদিকতাই নয়, পেশা হিসেবে সফলতার পরিচয় দিয়ে থাকে ব্যাংক-বীমা, মোবাইল ফোন কোম্পানি, ব্যবসা-প্রতিষ্ঠানসহ সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে জনসংযোগ ও যোগাযোগ-কর্মকর্তা, ব্র্যান্ড এক্সিকিউটিভ, ব্র্যান্ড ম্যানেজার, বিভিন্ন বিজ্ঞাপনী সংস্থার কপিরাইটার, ভিজুয়ালাইজার, বিভিন্ন এনজিও ও কর্পোরেট কমিউনিকেশনের বিভিন্ন পদ, ফটোসাংবাদিকতা এবং পেশাদার ও সৌখিন ফটোগ্রাফার হিসেবেও। গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগে সান্ধ্য মাস্টার্স কোর্সে এসব বিষয়ে তাত্ত্বিক ও হাতে-কলমে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে।

এই পরিপ্রেক্ষিতে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগে সান্ধ্য মাস্টার্স কোর্সে অংশগ্রহণকারীরা পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের মাস্টার্স ডিগ্রির সার্টিফিকেট অর্জনসহ বিভিন্ন মিডিয়া-হাউজে হাতে-কলমে প্রশিক্ষণের সুযোগ পাবেন, যা পরবর্তী সময়ে তাদের পেশাগত কাজে সহায়ক হবে।

পছন্দের আরো পোস্ট