উত্তরা বিশ্ববিদ্যালয়ে জাতীয় শোক দিবসের ভার্চুয়াল আলোচনা

নিজস্ব প্রতিবেদক।

হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি বাংলাদেশের স্বাধীনতার স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫তম শাহাদাত বার্ষিকী এবং জাতীয় শোক দিবস-২০২০ পালন উপলক্ষ্যে উত্তরা বিশ্ববিদ্যালয়ে আজ (১৫ আগস্ট,২০২০) শনিবার অনুষ্ঠিত হয়েছে বিশেষ ভার্চুয়াল আলোচনা অনুষ্ঠান “বিষাদের শব্দমালায় পিতা স্মরণ”।

এই অনুষ্ঠানটি (গুগল-মিটে) অনুষ্ঠিত হয়েছে এবং উত্তরা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফেসবুক পেইজে সরাসরি সম্প্রচারিত হয়েছে। বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কবিতা আবৃতি, বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে গান ও আলোচনার মধ্যদিয়ে জাতির জনক কে শ্রদ্ধা ও স্বরন করা হয় এবং জাতির জনকের আত্মার শান্তি কামনা করে দোয়া করা হয়।বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের সার্বিক তত্ত্বাবধানে উক্ত অনুষ্ঠানটি সম্পন্ন হয়েছে।

জাতীয় শোক দিবস-২০২০ এর আলোচনা অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথীর বক্তব্যে উত্তরা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. এম আজিজুর রাহমান বলেন, “জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের আজ ৪৫তম শাহাদাত বার্ষিকি ও জাতিয় শোক দিবস। আজকের এই দিনটিকে উত্তরা বিশ্ববিদ্যালয় যথাযোগ্য ভাব গাম্ভীর্যের সাথে পালন করছে৷ ১৯৭১ সালে জাতির জনকের নেতৃত্বের জন্যই মুক্তিকামী বাঙ্গালি স্বপ্নের স্বাধীনতা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছিলো। বঙ্গবন্ধু ছাড়া আজকের এই স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশ কখনোই সম্ভব হতো না। অতএব বংলাদেশ মানেই বঙ্গবন্ধু-বঙ্গবন্ধু মানেই বাংলাদেশ।”

শোক দিবসের আলোচনায় আরও অংশগ্রহণ করেন উত্তরা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. ইয়াসমীন আরা লেখা, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক মমতাজ বেগম এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিষ্ট্রার কাজী মহিউদ্দীন।

অনুষ্ঠানে বঙ্গবন্ধুর উপরে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বাংলা বিভাগের সিনিয়র লেকচারার সামজীর আহমেদ। অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন বাংলা বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক ড.সায়েদা বানু।

পছন্দের আরো পোস্ট