বশেমুরবিপ্রবির দুই শিক্ষার্থী করোনায় আক্রান্ত

ফয়সাল হাবিব সানি, বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধি

বিশ্বজুড়ে স্থবিরতা বিরাজ করছে করোনা আতঙ্কে। আর এরই মধ্যে সেই ভয়াবহ আতঙ্কে আক্রান্তের হার বেড়েই চলেছে বাংলাদেশেও। উদ্ভূত এই করোনা পরিস্থিতিতে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় চলছে কঠোর লকডাউন। স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতেও থমকে গেছে শিক্ষা কার্যক্রম। তার মধ্যে আক্রান্ত হচ্ছে বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া শিক্ষার্থীরাও। আর এবার করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) লাইভস্টক সায়েন্স অ্যান্ড ভেটেরিনারি মেডিসিন (এলভিএম) বিভাগের এক নেপালি শিক্ষার্থীসহ আইন বিভাগের আরেক শিক্ষার্থী।

 

তবে করোনা পজিটিভ আসার পরও ফ্লাইট সমস্যার দরুণ নেপালে যেতে পারেননি করোনায় আক্রান্ত নেপালি ওই শিক্ষার্থী। তাকে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের এবং গোপালগঞ্জ সিভিল সার্জনের নির্দেশনা মোতাবেক বিশ্বিবিদ্যালয়ের শেখ রাসেল হলে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। তবে গতকাল শনিবার (২০ জুন) হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে একটি বিশেষ ফ্লাইটে নেপালের উদ্দেশে যাত্রা করেন বশেমুরবিপ্রবিতে অধ্যয়নরত ২৮ জন নেপালি শিক্ষার্থী। তথাপি, আগেই করোনা আক্রান্ত হবার কারণে নেপালে যেতে পারেননি উক্ত বিভাগের ওই শিক্ষার্থী।

 

অন্যদিকে, বশেমুরবিপ্রবি’র আইন বিভাগের আরেক শিক্ষার্থীর করোনা আক্রান্তের সত্যতা জানতে পারা গেছে। ওই শিক্ষার্থী নিজেই তার করোনা আক্রান্তের খবর নিশ্চিত করেছেন। এ বিষয়ে ওই শিক্ষার্থীর সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে লেখাপড়া টোয়েন্টিফোর ডট নেটকে বলেন, `স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রমের সঙ্গে যুক্ত থাকায় আমাকে বাইরে বিভিন্ন স্থানে যেতে হয়েছে। এমতাবস্থায়, আমার মধ্যে করোনার কিছু উপসর্গ দেখা দিলে পরীক্ষা করার মাধ্যমে আমার করোনা পজিটিভ আসে। আমি বর্তমানে বাড়িতেই চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী আইসোলেশনে আছি।’

উল্লেখ্য, এর পূর্বে বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীসহ তার পরিবারের ২ সদস্যের করোনা শনাক্তের খবর ছড়িয়ে পড়েছিলো। তবে বর্তমানে তারা করোনা ভাইরাস মুক্ত হয়ে সুস্থ-স্বাভাবিক জীবনযাপন করছেন বলে জানতে পারা যায়।

পছন্দের আরো পোস্ট