অসচ্ছল শিক্ষার্থীদের পাশে দাঁড়ালো নোবিপ্রবি বিজনেস ক্লাব 

আব্দুল্লাহ আল নোমান।

করোনায় পুরো পৃথিবী থমকে গেছে। অায়ের চাকা বন্ধ হয়ে গেছে অনেকের। বিপাকে পড়েছে নিম্নবিত্ত পরিবারের সদস্যরা। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি সমস্যার মুখোমুখি হয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া অসচ্ছল শিক্ষার্থীরা। অাত্ম-সম্মানের কারণে না পারছে কাউকে বলতে, না পারছে দু’বেলা খেয়ে সুন্দরভাবে জীবনযাপন করতে। এই রকম অসচ্ছল শিক্ষার্থীদের তালিকা সংগ্রহ করে পাশে দাড়িঁয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যতম সংগঠন নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় বিজনেস ক্লাব।
ক্লাবের উদ্যোগে ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের শিক্ষক এবং শিক্ষার্থীদের সহযোগিতায় বিভাগের ১৪ পরিবারকে বিকাশ এবং রকেটের মাধ্যমে ৩১,০৭৫ টাকা সহযোগিতা করেন ক্লাবটি। ক্লাবের এমন মহৎ উদ্যোগে প্রশংসা করেন বিভাগের শিক্ষক, শিক্ষার্থী,কমকর্তা,কর্মচারী সকলে।
বিজনেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক অাবু নাঈম অাকাশ বলেন, দেশের বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের যারা আর্থিকভাবে অস্বচ্ছল এবং রুজিরোজগার বন্ধ হয়ে পড়েছে নোবিপ্রবি বিজনেস ক্লাব থেকে তাদেরকে সহযোগিতা করতে পেরে নিজেদেরকে ধন্য মনে করছি। এ মহতী উদ্যোগে যারা পাশে ছিলেন সংশ্লিষ্ট সবাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই।
ক্লাবের সভাপতি অাব্দুলাহ বিন ইসলাম নাদিম বলেন, এই উদ্যোগটি শুরু করার পেছনে আমাদের সাহস দিয়েছেন বিজনেস ক্লাবের সাবেক নেতৃবৃন্দ। আমাদের মূল লক্ষ্য ছিল যে, আমাদের ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের কোনো শিক্ষার্থী যেন এই করোনা ভাইরাসের দিনগুলোতে কষ্টে, অনাহারে দিন না পার করতে হয়। ধন্যবাদ সংশ্লিষ্ট সকল শিক্ষক,সিনিয়র -জুনিয়র, ক্লাবের সকল সদস্যদেরকে।
বিজনেস ক্লাবের উপদেষ্টা ও ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের চেয়ারম্যান ড.এস এম নজরুল ইসলাম বলেন, বিজনেস ক্লাবের এই মহৎ উদ্যোগকে অামি সাধুবাদ জানাই এবং ধন্যবাদ জানাই যেসকল শিক্ষক এবং শিক্ষার্থীদেরকে যারা এই মহৎ কাজে সার্বিকভাবে সহযোগিতা করেছেন। যারা পারিবারিকভাবে অার্থিক সংকটে অাছে তারা যেন অামার সাথে এবং বিজনেস ক্লাবের সাথে যোগাযোগ করে। অামরা অামাদের সাধ্যের অালোকে সর্বোচ্চ সহযোগিতা করার চেষ্টা করব। করোনার মহামারিতে যেন ব্যবসায় প্রশাসন পরিবারের কেউ অনাহারে দিনযাপন করতে না হয় এই জন্য বিভাগের সবার সহযোগিতা কামনা করছি।
পছন্দের আরো পোস্ট