খুবিতে আন্তর্জাতিক গণিত দিবস উদযাপন

খুবি প্রতিনিধি।

আজ (১৪ মার্চ ) শনিবার আন্তর্জাতিক গণিত দিবস উপলক্ষে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রাসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালিত হয়। ইউনেস্কোর ঘোষণার পর এবছরই আজ প্রথমবারের মতো বিশ্বব্যাপী এ দিবসটি পালিত হচ্ছে। এ উপলক্ষে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণিত ডিসিপ্লিনের উদ্যোগে ‘ম্যাথমেটিক্স ইজ এভরিহয়ার’ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়।

দিবসের শুরুতে সকাল ১০টায় প্রধান অতিথি ট্রেজারার প্রফেসর সাধন রঞ্জন ঘোষের নেতৃত্বে একটি বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা ড. সত্যেন্দ্রনাথ বসু একাডেমিক ভবনের সামনে থেকে শুরু করে হাদী চত্ত্বর হয়ে শহিদ তাজউদ্দীন আহমদ প্রশাসনিক ভবনের সামনে দিয়ে পুনরায় ড. সত্যেন্দ্র নাথ বসু একাডেমিক ভবনে গিয়ে শেষ হয়। পরে সেখানে সিএসই ডিসিপ্লিনের স্মার্ট ক্লাসরুমে এক আলোচনা সভা ডিসিপ্লিন প্রধান প্রফেসর ড. সর্দার ফিরোজ আহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়।

প্রধান অতিথি ট্রেজারার প্রফেসর সাধন রঞ্জন ঘোষ ইউনেস্কোকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন বিলম্বে হলেও তারা এমন একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়কে সামনে এনে আন্তর্জাতিক গণিত দিবস হিসেবে ঘোষণা করেছে। এর ফলে এ বিষয়টি বিশ্বব্যাপী আরও গুরুত্ব পাবে।

তিনি বলেন গণিত এমন একটি বিষয় যা জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে সম্পৃক্ত। বিশ্বব্রহ্মা-ের সবই গাণিতিক নিয়মে পরিচালিত হচ্ছে। তাই গণিত চর্চার গুরুত্ব অপরিসীম। তিনি খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে গণিত চর্চার প্রসারে একটি গণিত ক্লাব প্রতিষ্ঠার আহ্বান জানান।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ছাত্রবিষয়ক পরিচালক প্রফেসর মোঃ শরীফ হাসান লিমন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন আয়োজক কমিটির আহ্বায়ক প্রফেসর ড. মোঃ আজমল হুদা। পরে ম্যাথমেটিক্স ইন বায়োলজি এন্ড মেডিসিন এবং পাওয়ার অব ম্যাট্রিক্স : এলিমেন্টারি ডিসকাশন উইথ অ্যাপ্লিকেশন শীর্ষক বিষয়ের উপরে রিসোর্স পার্সন হিসেবে বক্তব্য রাখেন যথাক্রমে প্রফেসর ড. মোঃ হায়দার আলী বিশ্বাস এবং প্রফেসর ড. এ আর এম জালাল উদ্দীন জামেলি। পরে কুইজ কম্পিটিশন অনুষ্ঠিত হয় এবং শেষে বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

পছন্দের আরো পোস্ট