সাউথ এশিয়ান ইউনিভার্সিটি ফেস্টিভ্যাল

নিজস্ব প্রতিবেদক।

ভারতের হরিয়ানা রাজ্যের কুরুক্ষেত্র বিশ্ববিদ্যালয়ে ২৪-২৮ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত ১৩-তম ‘সাউথ এশিয়ান ইউনিভার্সিটি ফেস্টিভ্যালে’ জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিনিধি হিসেবে নাটক ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগের তরিক মৃধা (সংগীত), আকাশ সরকার (নৃত্য) এবং চারুকলা বিভাগের রুবাইয়াত নবী যোগদান করেন। সেখানে তারা গীত-নৃত্যে দর্শক-শ্রোতাদের বিমোহিত করেন।

এ অনুষ্ঠানের উদ্দেশ্য ছিলো সাউথ এশিয়ান দেশগুলোর মধ্যে আন্তযোগাযোগ বৃদ্ধি ও ঐকমত্য জোরদার করা। জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিনিধিগণ ‘সাউথ এশিয়ান ইউনিভার্সিটি ফেস্টিভ্যালে’ সফলভাবে অংশগ্রহণ করায় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. ফারজানা ইসলাম তাদেরকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন। তিনি বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিনিধিগণ আকর্ষণীয় অনুষ্ঠান উপহার দিয়ে আমাদেরকে গৌরবান্বিত করেছেন। আমরা মনে করি এই উৎসবের মধ্যদিয়ে সাউথ এশিয়ান দেশসমূহে শিক্ষামূলক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক এবং অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে পারস্পরিক সহযোগিতা ও সম্প্রীতি আরও সুদৃঢ় হবে।

‘সাউথ এশিয়ান ইউনিভার্সিটি ফেস্টিভ্যালে’ অংশগ্রহণকারী তরিক মৃধা তার অনুভূতি প্রকাশ করে বলেন, অন্য দেশের মাটিতে যখন নিজের দেশ বা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিনিধিত্ব করি তখন অপার আনন্দ আর গৌরবে মন ভরে যায়। আমার গান শুনে যখন দর্শকগণ বাংলাদেশ বাংলাদেশ বলে চিৎকার করলেন তখন আনন্দে অভিভুত হয়েছি।

অপর অংশগ্রহণকারী আকাশ সরকার বলেন, আমার জীবনের সবেচেয়ে ভালো এবং সুন্দর ফেস্টিভ্যাল ছিলো এটি। আমি আমার নৃত্য দিয়ে দেশের ঐতিহ্য তুলে ধরতে চেষ্টা করেছি৷ সবার প্রশংসা আমাকে আরো বহুদুর এগিয়ে নিয়ে যাবে বলে আশা করি৷ রুবাইয়াত নবী বলেন, এবারের অর্জন আমার বেশি ভাল লেগেছে একারণে যে আমি আমার বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মান রাখতে পেরেছি৷ বিভিন্ন দেশের পরিবেশনার মাধ্যমে অনেক কিছু শেখার সুযোগ হয়েছে৷ দেশ ও বিশ্ববিদ্যালয়কে তুলে ধরার জন্য এটা অনেক বড় একটা প্লাটফর্ম।

পছন্দের আরো পোস্ট