বঙ্গবন্ধু ইউল্যাব ফেয়ার প্লে কাপে জয় পেল যারা

নিজস্ব প্রতিবেদক।

বঙ্গবন্ধু ইউল্যাব ফেয়ার প্লে কাপের দুটি ম্যাচ ১১ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইউনিভার্সিটি অব লিবারেল আর্টস বাংলাদেশ (ইউল্যাব)-এর স্থায়ী ক্যাম্পাস ঢাকার মোহাম্মদপুরে অনুষ্ঠিত হয়।

দিনের প্রথম ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয় ইউরোপিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ (ইইউবি) ও প্রাইম ইউনিভার্সিটি এর মধ্যে হয়। ইউরোপিয়ান ইউনিভার্সিটি টসে জিতে প্রথমে বোলিং করার সিদ্ধান্ত নেয়। প্রাইম ইউনিভার্সিটি ২০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ১২৭ রান করে। ইইউবি ১৮ ওভারে ১২৮/২ রান করে। ফলে ৮ উইকেটের বড় জয় পায় ইইউবি।ইইউবি এর সাদি ৫৫ রান ও ১ উইকেট পেয়ে ম্যান অব দ্যা ম্যাচ হন।

দিনের অন্য ম্যাচে স্ট্যামফোর্ড ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ ৬ রানে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিকে (ডিআইইউ) হারায়। টসে জিতে ডিআইইউ বোলিং করার সিদ্ধান্ত নেয়। স্ট্যামফোর্ড ২০ ওভারে ১৪৫/৮ রান করে। যেখানে ডিআইইউ ২০ ওভারে ৯ উইকেটে ১৩৯ রান করতে সক্ষম হন। স্ট্যামফোর্ডের সাদ্দাম ৪৫ রান করে ম্যান অব দ্যা ম্যাচ হন।

এবছর বঙ্গবন্ধু ইউল্যাব ফেয়ার প্লে কাপে অংশগ্রহণ করছে ১২টি বিশ্ববিদ্যালয়। অংশগ্রহণকারী বিশ্ববিদ্যালয়গুলো হচ্ছে- ব্র্যাক ইউনিভার্সিটি, নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটি (এনএসইউ), ইন্ডিপেন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটি, বাংলাদেশ (আইইউবি), ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি (ইউআইইউ), ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি, ইউনিভার্সিটি অব এশিয়া প্যাসিফিক, স্ট্যামফোর্ড ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ, সাউথইস্ট ইউনিভার্সিটি, বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব বিজনেস এন্ড টেকনোলজি (বিইউবিটি), প্রাইম ইউনিভার্সিটি, ইউরোপিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ এবং টুর্নামেন্টের আয়োজক স্বাগতিক ইউনিভার্সিটি অব লিবারেল আর্টস বাংলাদেশ (ইউল্যাব)।

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলো নিয়ে অনুষ্ঠিত একমাত্র ক্রিকেট প্রতিযোগিতা হিসেবে ‘ইউল্যাব ফেয়ার প্লে কাপ’ ইতোমধ্যে ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে। এই টুর্নামেন্টে যারা চ্যাম্পিয়ন হবে তারা বিদেশের মাটিতে খেলার সুযোগ পাবে। এর আগে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় চ্যাম্পিয়ন হয়ে ইংল্যান্ড, শ্রীলঙ্কা, ইন্ডিয়া ও দুবাইয়ে একাধিকবার খেলার সুযোগ পেয়েছে।

অংশগ্রহণকারী বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক এবং প্রতিযোগিতার মাধ্যমে ইতিবাচক মনোভাব সৃষ্টির লক্ষ্যে আয়োজিত হয় ‘ইউল্যাব ফেয়ার প্লে কাপ’। গত বছর ১২ তম ইউল্যাব ফেয়ার প্লে কাপে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলো স্ট্যামফোর্ড ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ। পুরো প্রতিযোগিতায় ২০টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। প্রথম রাউন্ডে ১২ ম্যাচের ফলাফলের ওপর ভিত্তি করে সুপার এইটে ৮ টি দল খেলবে। সুপার এইট শেষে বিজয়ী চারটি দল ফাইনালে ওঠার জন্য ১৮ ফেব্রুয়ারি থেকে সেমিফাইনালে মুখোমুখি হবে। ২০ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে ফাইনাল। পুরস্কার হিসেবে এ বছরের বিজয়ী দল পাবে ৫০ হাজার টাকা আর রানার্স আপ দল পাবে ৩০ হাজার টাকা।

এ টুর্নামেন্টে সব রকম কারিগরি সহায়তা দিচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি), গোল্ড স্পন্সর হিসেবে সহযোগিতা করছে এস্পায়ার ক্রিয়েট এক্সেল (এইসি), কো-স্পন্সর হিসেবে থাকছে বসুন্ধরা টিস্যু, ফ্যাশন পার্টনার আর্টিসান, গিফট পার্টনার মিনা সুইটস।

পছন্দের আরো পোস্ট