আমি শেখ মুজিব শীর্ষক উন্মুক্ত সেমিনার

জাবি প্রতিনিধি।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের নাটক ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগের আয়োজনে আজ ‘নাটকের সংলাপ ও এপিক মনোলগ: আমি শেখ মুজিব’ শীর্ষক উন্মুক্ত সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে। নাটক ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগের সভাপতি ড. সোমা মুমতাজের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সেমিনারে মূল বক্তা ছিলেন সুইডেন প্রবাসী কবি ও নাট্যকার আনিসুর রহমান।

সেমিনারে আরও বক্তব্য রাখেন বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক ড. এ কে এম ইউসুফ হাসান অর্ক। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন মহিবুর রৌফ শৈবাল। মূল বক্তা আনিসুর রহমান বলেন, বঙ্গবন্ধুর মহাকাব্যিক ও এপিক চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য নিয়ে শ্রেষ্ঠ নাটক রচিত হতে পারে। সৃজনশীল সব কর্মই মানুষের জন্য। জীবনই নাটকের অনুষঙ্গ। তিনি বলেন, বাংলাদেশের নাটক নিয়ে সুইডেনে নিরীক্ষা ধর্মী কাজ হতে পারে। বাংলাদেশের মুক্তি সংগ্রাম, স্বাধীনতা ও বাঙালি জাতির উত্থানে বঙ্গবন্ধুর অবদান আজ সর্বস্বীকৃত ঐতিহাসিক বিষয়। এসব বিষয় নিয়ে অসংখ্য সৃজনশীল শিল্প-সাহিত্য রচিত হতে পারে।

সভাপতির ভাষণে ড. সোমা মুমতাজ বলেন, পা-িত্যের দাপটে প্রকাশের অকপটতা মার খেলে নাটকের যে দশা হতে পারে, আমাদের রবীন্দ্র উত্তর বাংলা নাটক সে শনির দশা থেকে বের হয়ে আসতে পারেনি। প্রতিবছর বিশ্ববিদ্যালয়গুলো থেকে সাহিত্য আর নাটকের বিভাগ থেকে শতশত ¯স্নাতক শিক্ষার্থী বের হয়ে এলেও সে তুলনায় শিল্পচর্চা করার শিল্পী বেরিয়ে আসে না। এ নিয়ে খোলাখুলি বিতর্কও নাই। এই নাই বাস্তবতা আরো নানাকিছুর সঙ্গে আমাদের শিল্পের জগতকে থাবা মারে। তবে আমরা আশা করি, এ থাবা ভেদ করে সৃজনশীল শিল্পচর্চা জয়ী হবে।

সেমিনারে বিভাগীয় শিক্ষক ও শিক্ষার্থীগণ অংশগ্রহণ করেন।

পছন্দের আরো পোস্ট