নর্দান ইউনিভার্সিটির ৫ম সমাবর্তন

নিজস্ব প্রতিবেদক।

“তথ্য-প্রযুক্তিভিত্তিক সমাজ বিনির্মাণ ও ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে দক্ষ ও যোগ্য নাগরিক তৈরি পাশাপাশি মানবিক গুণাবলীরও বিকাশ ঘটাতে হতে হবে’’। নর্দান ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশের ৫ম সমাবর্তন অনুষ্ঠানে এনইউবি স্থায়ী ক্যাম্পাস আশকোনা, দক্ষিণ খানে সভাপতির বক্তৃতায় গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি, এম.পি. এ কথা বলেন।

সভাপতির বক্তৃতায় মাননীয় শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি, এম.পি. আরোও বলেন, “চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের জন্য উপযোগী জ্ঞান, কর্মজগতের চাহিদা অনুযায়ী দক্ষতা এবং সাফল্যের জন্য প্রয়োজনীয় যথাযথ মনোভাবের সুসমন্বয়ে শিক্ষার্থীদের গড়ে তুলতে হবে যোগ্য মানব সম্পদ হিসাবে। শিক্ষার্থীদের কল্যাণমুখী ও প্রায়োগিক গবেষণা করতে উৎসাহী করতে হবে যেন দেশ গঠনে তারা ভুমিকা পালন করতে পারে’’। বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে এক্ষেত্রে যথাযথ ভুমিকা পালন করতে হবে এবং তিনি শিক্ষার্থীদের চাকরি পেছনে না ছুটে উদ্যোক্তা হাওয়ার পরামর্শ দেন মাননীয় মন্ত্রী। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের মহামান্য রাষ্ট্রপতি ও নর্দান ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশের আচার্য মোঃ আবদুল হামিদের পক্ষে তাঁর প্রতিনিধি হিসেবে মন্ত্রী সমাবর্তন অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন।

সমাবর্তন বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন টেন মিনিট স্কুল এর ফাউন্ডার-সিইও জনাব আয়মান সাদিক এবং পাঠাও লিমিটেড এর সিইও জনাব হুসাইন এম ইলিয়াস। আয়মান সাদিক বলেন, ‘ভবিষ্যতের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় ও সুন্দর জাতীয় গঠনে এনইউবির শিক্ষার্থীদের অনেক বড় ভূমিকা রাখতে হবে।’ শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে হুসাইন এম ইলিয়াস বলেন, ‘প্রযুক্তিগত ভাবে পুরো পৃথিবী খুব দ্রুত পরিবর্তন হচ্ছে, প্রযুক্তিকে ব্যবহার করে আমাদেরও সামনে এগিয়ে যেতে হবে। স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ালেখার মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকলে চলবে না, দ্রুত এগিয়ে যেতে হলে নিয়মিত জ্ঞান অর্জন করতে হবে’।

সমাবর্তন অনুষ্ঠানে ৩৪৩৫ জন শিক্ষার্থীকে গ্র্যাজুয়েশন ও পোষ্ট গ্র্যাজুয়েশন ডিগ্রি এবং কৃতিত্বপূর্ণ ফলাফলের জন্য দশজন শিক্ষার্থীকে স্বর্ণপদক প্রদান করা হয়। সমাবর্তন অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন নর্দান ইউনিভার্সিটির বোর্ড অব ট্রাস্টিজ এর চেয়ারম্যান জনাব অধ্যাপক ড. আবু ইউসুফ মো. আব্দুল্লাহ। তিনি শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অর্জিত জ্ঞান শুধুমাত্র সার্টিফিকেট লাভের উদ্দেশ্যে সীমাবদ্ধ না রেখে দেশ এবং জাতির সেবায় আত্মনিয়োগ করতে হবে।

নর্দান ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ এর উপাচার্য অধ্যাপক ড. আনোয়ার হোসেন শিক্ষার্থীদেরকে ভালো মানুষ হওয়ার পাশাপাশি সমাজ ও দেশের মানুষের কল্যাণে নিজেদেরকে আত্বনিয়োগ করার আহবান জানান। নর্দান ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. ইঞ্জি. মো. হুমায়ুন কবির, ইউনিভার্সিটির ৫ম সমাবর্তন অনুষ্ঠান সুষ্ঠভাবে সম্পন্ন করার জন্য সভাপতি, সমাবর্তন বক্তা, বিশ্ববিদ্যালয়ের ডীন, শিক্ষক-শিক্ষিকা, কর্মকর্তা- কর্মচারী, সাংবাদিক ও আইন শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন।

এছাড়া, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিষয়ক উপদেষ্টা ড. মসিউর রহমান এবং বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন এর চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. কাজী শহিদুল্লাহ।

সমাবর্তন অনুষ্ঠানে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর, ইউনিভার্সিটির বোর্ড অব ট্রাস্টিজের সদস্যবৃন্দ, সকল অনুষদের ডীন, বিভাগীয় প্রধানগণ, শিক্ষক-শিক্ষিকা, কর্মকর্তা-কর্মচারী, সাংবাদিক, শিক্ষাবিদ ও সমাজের বিভিন্ন স্তরের বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

পছন্দের আরো পোস্ট