খুবিতে একাডেমিক কাউন্সেলিং এন্ড মোটিভেশন কর্মশালা

খুবি প্রতিনিধি।

আজ (৫ জানুয়ারি ২০২০) রবিবার খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য জগদীশচন্দ্র বসু একাডেমিক ভবনের সাংবাদিক লিয়াকত আলী মিলনায়তনে ইনস্টিটিউশনাল কোয়ালিটি অ্যাসুরেন্স সেলের (আউকিউএসি) উদ্যোগে প্রথম বর্ষে ভর্তিকৃত শিক্ষার্থীদের জন্য দিনব্যাপী একাডেমিক কাউন্সিলিং এন্ড মোটিভেশন কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। সকাল সাড়ে ৯ টায় আইকিউএসির পরিচালক প্রফেসর ড. মোঃ সারওয়ার জাহানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ অনুষ্ঠানের উদ্বোধনী পর্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ও পাওয়ার পয়েন্টে কীস টু সাকসেস ইন হায়ার এডুকেশন (উচ্চ শিক্ষায় সফলতার চাবিকাঠি) শীর্ষক নিবন্ধ উপস্থাপন করেন উপাচার্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ফায়েক উজ্জামান।

তিনি বলেন খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের আজ যে অবস্থান, শিক্ষার যে সুষ্ঠু পরিবেশ, লেজুড়বৃত্তিক ছাত্র রাজনীতিমুক্ত যে ক্যাম্পাস তা সৃষ্টিতে শিক্ষার্থীরাই প্রধান ভূমিকা রেখেছে। তারা আজও তা লালন করে আসছে। এ অহংবোধ তারা করতে পারে। খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের চিত্র এখন পহেলা জানুয়ারিতেই নবাগতদের পদচারণায় মুখরিত হয়, শিক্ষকবৃন্দ তাদেরকে সাদরে গ্রহণ করে, সিনিয়র শিক্ষার্থীরা তাদেরকে স্নেহের সাথে শুভেচ্ছা জানায়। কিন্তু এ বছর পহেলা জানুয়ারি নবাগতরা ক্যাম্পাসে এসে প্রথম দিনই যে দৃশ্য দেখেছে তা বিচ্ছিন্ন ঘটনা। এটা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রকৃত চিত্র নয়।

তিনি নবাগত শিক্ষার্থীদেরকে জীবনের সময়ানুবর্তী, নিষ্ঠাবান, দৃঢ়প্রতিজ্ঞ হওয়া, নিজের মধ্যে মূল্যবোধ প্রতিষ্ঠা করা, সৃজনশীল হওয়ার পরামর্শ দেন। তিনি ক্লাসে নিয়মতি লেখাপড়ার পাশাপাশি গ্রুপভিত্তিক পড়াশোনার উপর জোর দেন।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিজ্ঞান, প্রকৌশল ও প্রযুক্তিবিদ্যা স্কুলের ডিন প্রফেসর ড. উত্তম কুমার মজুমদার। স্বাগত বক্তব্য রাখেন আইকিউএসির অতিরিক্ত পরিচালক প্রফেসর ড. মোহাম্মদ জিয়াউল হায়দার। উদ্বোধনী পর্বের পর কয়েকটি সেশনে বিভিন্ন বিষয়ের ওপর পাওয়ার পয়েন্টে নিবন্ধ উপস্থাপন করেন এগ্রোটেকনোলজি ডিসিপ্লিনের প্রফেসর ড. মোঃ সারওয়ার জাহান, কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং ডিসিপ্লিনের প্রফেসর ড. মোঃ আনিসুর রহমান, নগর ও গ্রামীণ পরিকল্পনা ডিসিপ্লিনের প্রফেসর ড. মোঃ আহসানুল কবীর এবং পুনর্নিবেশ করেন আইকিউএসির পরিচালক প্রফেসর ড. মোঃ সারওয়ার জাহান। পাঁচদিনব্যাপী পর্যায়ক্রমে ২৯টি ডিসিপ্লিনের বারো শতাধিক শিক্ষার্থীকে এ ওয়ার্কশপে উচ্চশিক্ষায় সফলতা অর্জন ও বিশ্ববিদ্যালয়ে তাদের শিক্ষণীয়, অনুসরণীয় নিয়মাবলী, আচরণবিধিসহ বিভিন্ন বিষয়ে দিক-নির্দেশনা ও উদ্বুদ্ধ করা হবে। প্রথম দিনে ৬টি ডিসিপ্লিনের শিক্ষর্থীরা এই কর্মশালায় অংশ নেয়। ডিসিপ্লিনগুলো হচ্ছে কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং, ইলেক্ট্রনিক্স এন্ড কমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং, নগর ও গ্রামীণ পরিকল্পনা, পদার্থবিজ্ঞান, রসায়ন এবং পরিসংখ্যান ডিসিপ্লিন। কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সংশ্লিষ্ট ডিসিপ্লিনসমূহের প্রধানবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

পছন্দের আরো পোস্ট