সিইডিপির ৯ম ব্যাচের সমাপনী

নিজস্ব প্রতিবেদক।

বিশ্বায়নের যুগে চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় দক্ষ শিক্ষক হিসেবে নিজেদেরকে তৈরি করতে হবে বলে মনে করেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য (ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর ড. মো. মশিউর রহমান। তিনি বলেন, ‘একজন শিক্ষককে প্রতিযোগিতার যুগে টিকে থাকতে হলে আধুনিক জ্ঞানে সমৃদ্ধ হতে হবে। শিক্ষার্থীদের মধ্যে আধুনিক জ্ঞান সঞ্চার করে উন্নত জাতি গঠনে ভূমিকা রাখতে হবে।’

আজ বুধবার জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ক্যাম্পাসে সিনেট হলে কলেজ এডুকেশন ডেভেলপমেন্ট প্রজেক্টের (সিইডিপি) ৯ম ব্যাচের শিক্ষক-প্রশিক্ষণ কার্যক্রমের সমাপনী ও সনদ বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

প্রধান অতিথি বলেন, ‘আমাদের অনেক সীমাবদ্ধতা থাকবে। কিন্তু সেই সীমাবদ্ধতাকে পেছনে ফেলে সামনে এগিয়ে যেতে হবে। প্রশিক্ষণের মাধ্যমে যে প্রাণসঞ্চার হয়েছে, নব উদ্যোগে উচ্চশিক্ষার মানোন্নয়নে তা কাজে লাগাতে হবে।’

সিইডিপির ৯ম ব্যাচের সমাপনী অনুষ্ঠান শেষে প্রশিক্ষণে অংশ নেয়া ১৪৯ জন শিক্ষকের হাতে সনদ তুলে দেন মাননীয় প্রধান অতিথি। এরমধ্যে দর্শন বিভাগে ৩৩ জন, ইতিহাস বিভাগে ৩৮ জন, হিসাব বিজ্ঞান বিভাগে ৪০ জন এবং ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগে ৩৮ জনকে সনদ দেয়া হয়।

কোর্স উপদেষ্টা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের প্রফেসর ড. নুরুল ইসলাম নাজেম, হিসাব বিজ্ঞান বিভাগের প্রফেসর ড. ধীমান কুমার চৌধুরী, ইতিহাস বিভাগের প্রফেসর ড. আশা ইসলাম নাঈম, দর্শন বিভাগের প্রফেসর মো. নূরুজ্জামান।

স্নাতকোত্তর শিক্ষা, প্রশিক্ষণ ও গবেষণা কেন্দ্রের ডিন প্রফেসর ড. মো. আনোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে সমাপনী অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মোল্লা মাহফুজ আল-হোসেন, বিভিন্ন বিভাগীয় প্রধান, শিক্ষক ও কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

পছন্দের আরো পোস্ট