সাদার্নে নবীনবরণ ও এমবিএ নাইট অনুষ্ঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

সাদার্ন ইউনিভার্সিটির ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদের উদ্যোগে নবীনবরণ ও এমবিএ নাইট-২০১৯ অনুষ্ঠান গতকাল শুক্রবার রাতে উৎসব মুখর পরিবেশে চট্টগ্রাম ক্লাবের অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়। গান,নৃত্য, মূখাভিনয়,কবিতা, নাটক, স্মৃতিচারণ ও আলোচনা সভাসহ নানা পরিবেশনায় রাতটাকে স্মরণীয় করে রাখলো এমবিএ’র নবীন ও প্রবীণ শিক্ষার্থীরা।

ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের প্রধান প্রফেসর ড. ইসরাত জাহানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এমবিএ নাইট প্রোগ্রামে উপস্থিত ছিলেন উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. নুরুল মোস্তফা, উদ্যোক্তা ও প্রতিষ্ঠাতা প্রফেসর সরওয়ার জাহান, উপ-উপাচার্য প্রফেসর ইঞ্জিনিয়ার এম আলী আশরাফ, এনআরবি গ্লোবাল ব্যাংক লিমিটেড’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক সৈয়দ হাবিব হাসনাত, একাডেমিক উপদেষ্টা ড. মার্ক বার্থোলোমিউ, আইকিউএসি পরিচালক প্রফেসর এজেএম নুরুদ্দীন চৌধুরী,ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদের ডিন প্রফেসর ড, আ.ন.ম আব্দুল মোক্তাদীর, বিভিন্ন অনুষদের ডিন, বিভাগীয় প্রধানগণ, রেজিস্টার, শিক্ষকবৃন্দসহ এমবিএ’র নবীন ও প্রবীণ শিক্ষার্থীরা।

উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. নুরুল মোস্তফা বলেন, এটা আমাদের জন্য গর্ব ও আনন্দের যে, সাদার্নের মাধ্যমে মূলত চট্টগ্রামে এমবিএ’র প্রসারতা শুরু হয়। যারা নতুন, সাদার্ন এর আঙিনায় পা রেখেছো, তোমরা অত্যন্ত সৌভাগ্যবান কারণ আজ থেকে তোমরাও এই গৌরবের অংশীদার হয়ে গেলে। ইতোমধ্যে তোমাদের অগ্রজরা যোগ্যতার প্রমাণ দিয়ে সাদার্নকে অনেক দূর নিয়ে গেছে। সাফল্যের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে এখন তোমাদের দায়িত্ব নিতে হবে।

তিনি আরও বলেন, সাদার্ন ইউনিভার্সিটি সব সময় গুণগত শিক্ষা ও বিশ্বমানের শিক্ষায় বিশ্বাসী। শুধুমাত্র ডিগ্রি অর্জনে জীবনের স্বার্থকতা আসে না বরণ অর্জিত জ্ঞানকে সঠিকভাবে প্রয়োগ করে নিজের অবস্থান তৈরি করে নেওয়ায় আসল স্বার্থকতা। শিক্ষার মানোন্নয়নের জন্য কিছু বিষয় খুব গুরুত্বপূর্ণ যেমন-ভালো শিক্ষক, অবকাঠামোগত সুযোগ সুবিধা, গবেষণার সুযোগ, অরাজনৈতিক স্থিতিশীল পরিবেশ সর্বোপরি গুণগত শিক্ষা নিশ্চিতকরণে যা করণীয় সবি করে যাচ্ছে সাদার্ন।

প্রফেসর সরওয়ার জাহান বলেন, এই দিনটা আমাদের জন্য স্মরণীয় দিন, ৯৯ সালে শুধুমাত্র একজন শিক্ষার্থী দিয়ে এমবিএ’র পথ চলা শুরু হয়েছিল যা আজ হাজার হাজার শিক্ষার্থীর মিলন কেন্দ্র। এমবিএ’র শুরুর ইতিহাসটা মনে করলে আমি খুব আবেগী হয়ে যায় কারণ এটা আমার জীবনের একটি স্মরণীয় স্বপ্নময় দিন। ইতোমধ্যে সবাই জেনেছে সাদার্ন ইউনিভার্সিটি বিশাল জায়গা নিয়ে শিক্ষার্থীদের দীর্ঘ দিনের লালিত স্বপ্নের স্থায়ী ক্যাম্পাস গড়ে তুলেছে। এই পূর্ণতা আমাদেরকে আরও সমৃদ্ধ করেছে। সাদার্নের এই অর্জন ও সুনামকে অক্ষুন্ন রাখতে শিক্ষার্থীদেরকেই অগ্রণী ভূমিকা নিতে হবে। সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টায় বিশ্বমানের শিক্ষার স্বপ্ন পূরণে এগিয়ে যাচ্ছে সাদার্ন, আর এ স্বপ্ন বাস্তবায়নে শিক্ষার্থীরাই আসল কারিগর, শিক্ষার্থীদের হাত ধরে এগিয়ে যাবে এই বিদ্যাপিঠ।

অনুষ্ঠানে শিক্ষকরা ইউনিভার্সিটির নিয়ম কানুনসহ শিক্ষার সামগ্রিক বিষয় তুলে ধরেন। প্রবীণ শিক্ষাথীরা বর্ণনা করেন নিজেদের অভিজ্ঞতা আর নবীনরা প্রকাশ করে অনূভূতি। পরে প্রীতি ভোজের সাথে সাথে উপস্থিত সকলে উপভোগ করেন মনোমুগ্ধকর বিভিন্ন ধরনের সাংস্কৃতিক পরিবেশনা। চমৎকার আয়োজনের জন্য সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করে প্রফেসর ড. ইসরাত জাহান।

পছন্দের আরো পোস্ট