ড্যাফোডিলে জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে গত বুধবার (২৮ আগস্ট) এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের ৭১ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত এ আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা-১৭ আসনের সংসদ সদস্য ও একসময়ের জনপ্রিয় চিত্রনায়ক আকবর হোসেন পাঠান (ফারুক), এমপি।

ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধ্যাপক ড. ইউসুফ মাহবুবুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ মমিনুল হক মজুমদার, অর্থ ও হিসাব বিভাগের উপদেষ্টা মো. হামিদুল হক খান, বিভিন্ন অনুষদের ডিন, বিভাগীয় প্রধান ও শিক্ষার্থীবৃন্দ। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির স্টুডেন্ট অ্যাফেয়ার্সের পরিচালক সৈয়দ মিজানুর রহমান।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে আকবর হোসেন পাঠান (ফারুক) বলেন, বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করা মানে দেশকে হত্যা করা, স্বাধীনতাকে হত্যা করা। যারা বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেছে তারা আসলে বাংলাদেশকেই হত্যা করেছে। এই খুনীদেরকে নতুন প্রজন্ম যেন কখনোই ক্ষমা না করে সেই আহ্বান জানান আকবর হোসেন পাঠান (ফারুক)।

তরুণ শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে বাংলা চলচ্চিত্রের এই জীবন্ত কিংবদন্তী আরো বলেন, স্বাধীনতা কী তা গভীরভাবে ভাবতে হবে। ভাবতে হবে এই স্বাধীনতা কে এনে দিয়েছেন। আজ যে স্বাধীন দেশে স্বাধীনভাবে বেঁচে আছেন, সেটা কার অবদান। এসব ইতিহাস জানতে হবে এবং বঙ্গবন্ধু যে সোনার বাংলার স্বপ্ন দেখতেন সেই স্বপ্ন পূরণে কাজ করতে হবে। বঙ্গবন্ধু একটি স্বাধীন দেশ উপহার দিয়ে গেছেন, বঙ্গবন্ধুকন্যা সেই দেশকে সোনার বাংলায় রূপান্তর করতে কাজ করে যাচ্ছেন। বাংলাদেশের প্রতিটি নাগরিকের এই সোনার বাংলা গড়ার কাজে শরীক হওয়া উচিত বলে মন্তব্য করেন তিনি।

পছন্দের আরো পোস্ট