ঢাবি ভূতত্ত্ব বিভাগের ৭০ বছর পূর্তি

ঢাবি প্রতিনিধিঃ

দিনব্যাপী বিভিন্ন আয়োজনের মধ্য দিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভূতত্ত্ব বিভাগ ৭০ বছর পূর্তি উদযাপন করেছে। ২৮ জুন ২০১৯ শুক্রবার সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বিভাগীয় চত্বরে আয়োজিত এই অনুষ্ঠানের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পরিকল্পনা মন্ত্রী এম. এ. মান্নান, এমপি।

বিভাগীয় চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. কাজী মতিন উদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিদ্যুৎ,জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ এমপি, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ সচিব আবু হেনা মোঃ রহমাতুল মুনিম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আর্থ এন্ড এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্সেস অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. এ.এস.এম. মাকসুদ কামাল এবং ভূতত্ত্ব অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি অধ্যাপক ড. এ. এ. এম. শামসুর রহমান। অনুষ্ঠানে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন বিভাগের সর্বজ্যেষ্ঠ শিক্ষক অধ্যাপক ড. আ.স.ম. উবাইদউল্লাহ।

উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান উদ্বোধনী ভাষণে ৭০ বছর পূর্তি উপলক্ষে বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও অ্যালামনাইদের আন্তরিক শুভেচ্ছা জানান। তিনি বলেন, ভূতত্ত্ববিদ, সংশ্লিষ্ট বিষয়ে গবেষক ও বিশেষজ্ঞ এবং সরকারের নীতিনির্ধারনী ব্যক্তিদের সম্পৃক্ত করে দিনব্যাপী এই আয়োজন করায় ভূতত্ত্ব বিভাগ এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সংশ্লিষ্ট ক্ষেত্রে কতগুলো টার্গেট অর্জন করতে সক্ষম হবে। দেশ ও জাতির সার্বিক উন্নয়ন ও অগ্রগতির জন্য ভূতত্ত্ব বিভাগ বাস্তবমুখী বিভিন্ন শিক্ষা ও গবেষণা কার্যক্রম অব্যাহত রাখবে বলে উপাচার্য আশাবাদ ব্যক্ত করেন । তিনি বিভাগের ৭০ বছর পূর্তি উপলক্ষে দিনব্যাপী কর্মসূচির সাফল্য কামনা করেন।

পরিকল্পনা মন্ত্রী এম. এ. মান্নান, এমপি বিভাগের ৭০ বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে বিভাগের সকল শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও অ্যালামনাইদের আন্তরিক ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে বলেন, বাংলাদেশের খনিজ সম্পদ উত্তোলনে পর্যাপ্ত গবেষণা প্রকল্প প্রণয়ন করে তা বাস্তবায়নের মাধ্যমে দেশ ও জাতির অগ্রযাত্রায় ভূতত্ত্ববিদরা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবেন। এ ব্যাপারে তিনি সরকারের পক্ষ থেকে সর্বাত্মক সাহায্য-সহযোগিতা প্রদানের আশ্বাস প্রদান করেন।

দিনব্যাপী অনুষ্ঠানমালার মধ্যে রয়েছে আলোকচিত্র প্রদর্শনী, স্মৃতিচারণ এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

পছন্দের আরো পোস্ট