গণহত্যা দিবসে কুবিতে মোমবাতি প্রজ্জ্বলন

কুবি প্রতিনিধি: 

জাতীয় গণহত্যা দিবসের ভয়াবহতাকে স্মরণ করে মোমবাতি প্রজ্জ্বলন করেছে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুবি) বাংলা বিভাগ। সোমবার (২৫ মার্চ) সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা ও মানবিক এবং সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদ ভবনের সবকটি করিডোরকে মোমবাতির আলোয় প্রজ্জ্বলিত করেন বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

বাংলা বিভাগ ও বিভাগের সহযোগী সংগঠন বাংলা ভাষা-সাহিত্য পরিষদের উদ্যোগে প্রতিবারের মতো এবারও ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ গভীর রাতের নৃশংস ও জঘণ্যতম গণহত্যার স্মৃতিচারণ করা হয়। আলোক প্রজ্জ্বলন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপাচার্য প্রফেসর ড. এমরান কবির চৌধুরী।

আলোক প্রজ্জ্বলন অনুষ্ঠান থেকে অতিথি এবং শিক্ষার্থীরা জানান, মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন ‘৭১ এর এই দিনে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী যেভাবে ঘুমন্ত বাঙালির উপর অতর্কিত, বর্বরোচিত হামলা চালিয়ে জাতিকে মেধাশূন্য করে অন্ধকারে নিমজ্জিত করতে চেয়েছিল তা কখনো হতে দেয়া যাবে না। আলোকচ্ছটায় দূর হবে জগতের সব ধরনের অন্ধকার। আগুনের দীপ্ত শিখায় সেই আলোকিত চেতনা-ই খুঁজে পায় কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় বাংলা পরিবার।

এসময় উপস্থিত ছিলেন শিক্ষক সমিতির সভাপতি ড. মো: শামিমুল ইসলাম; কলা ও মানবিক অনুষদের ডিন ও বাংলা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. জি. এম. মনিরুজ্জামান; বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. তসলিমা খাতুন; সহকারী অধ্যাপক মো. মোকাদ্দেস-উল-ইসলাম, কামরুন নাহার; প্রভাষক নূর মোহাম্মদ রাজু, সাদিয়া আফরোজ সিফাত, বাংলা ভাষা-সাহিত্য পরিষদের সহ-সভাপতি জান্নাতুল ফেরদৌস, সাধারণ সম্পাদক সুরাজ বলসহ বাংলা বিভাগের বিভিন্ন আবর্তনের শিক্ষার্থীরা।

প্রসঙ্গত, ২০১২ সাল থেকে প্রতিবছরই ২৫ মার্চ কালরাতের সেই ভয়াবহতাকে স্মরণ করে মোমবাতি প্রজ্জ্বলন করে আসছে বাংলা বিভাগ।

পছন্দের আরো পোস্ট