জাবি উপাচার্যের কার্যালয় ঘেরাও : নিয়োগের সাক্ষাৎকার স্থগিত

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাবি) ফের উপাচার্যের কার্যালয় ঘেরাও করেছে আওয়ামী লীগপন্থী শিক্ষকদের একাংশের সংগঠন ‘বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায বিশ্বাসী প্রগতিশীল শিক্ষক সমাজ’। রোববার সকাল সাড়ে ৮টা থেকে বিকাল তিনটা পর্যন্ত প্রশাসনিক ভবনের তিনটি ফটকে ব্যানার ঝুলিয়ে অবস্থান নেন তারা।

এদিকে পূর্বনির্ধারিত পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের নতুন শিক্ষক নিয়োগের সাক্ষাৎকার ছিল গতকাল। উপাচার্যের কার্যালয় ঘেরাও কর্মসূচির ফলে সাক্ষাৎকারটি স্থগিত করা হয় বলে জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ডেপুটি রেজিস্ট্রার মোহাম্মদ আলী।

কর্মসূচি চলাকালে সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক ফরিদ আহমেদ বলেন, ‘দীর্ঘ ৪মাস সিন্ডিকেট সভা না হওয়ায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের পদোন্নতি, শিক্ষার্থীদের সনদপত্র ও ডিগ্রিসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বিষয় স্থগিত রয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে নতুন নিয়োগ না দিয়ে সিন্ডিকেট সভা আহ্বানের মাধ্যমে স্থগিত বিষয়সমূহের সমাধান জরুরী।’

তিনি আরও বলেন, ‘অধ্যাদেশ অনুযায়ী বিশ্ববিদ্যালয়ে যখন ক্লাস-পরীক্ষা বন্ধ থাকে তখন কোনধরণের শিক্ষক নিয়োগ হতে পারেনা। কিন্তু নতুন শিক্ষক নিয়োগ দিতে উপাচার্য ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন। তাই বুঝাই যাচ্ছে স্বার্থন্বেষী শিক্ষকরা উপাচার্যকে চাপ প্রয়োগের ফলে এই বন্ধের মধ্যে নতুন শিক্ষক নিয়োগের সাক্ষাৎকারের জন্য সিলেকশন বোর্ডের আহ্বান করেন।’

এর আগে এক সংবাদ সম্মেলনে উপাচার্য যে সিন্ডিকেট বাতিল করেছেন তা সম্পন্ন না হওয়া পর্যন্ত সব ধরনের নতুন নিয়োগ প্রতিহত করার ঘোষণা দেয় সংগঠনটি। সেই ঘোষণার অংশ হিসেবেই এই ঘেরাও কর্মসূচি হয়েছে বলে জানান তিনি।

প্রসঙ্গত, উপাচার্যের ‘অধ্যাদেশ বিরোধী’ কর্মকান্ডসহ বিভিন্ন দাবিতে গত ১৭ এপ্রিল থেকে আন্দোলন করে আসছেন উপাচার্য বিরোধী আওয়ামীপন্থী শিক্ষকদের সংগঠন ‘বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী প্রগতিশীল শিক্ষক সমাজ’।

##
জোবায়ের
০১৬৩৩৯১৮৫৫৯

পছন্দের আরো পোস্ট