আইইউবিতে ব্যবসায় উদ্যোগ,উদ্ভাবন বিষয়ক সেমিনার

ইনডিপেনডেন্ট ইউনিভার্সিটি, বাংলাদেশ (আইইউবি)-র স্কুল অফ বিজনেসের উদ্যোগে ‘ব্যবসায় উদ্যোগ, উদ্ভাবন ও বাংলাদেশের ভবিষ্যত প্রস্তুতি ’ শীর্ষক এক সেমিনার গতকাল (৯ মে, ২০১৮) বুধবার আইইউবি ক্যাম্পাস বসুন্ধরা, ঢাকায় অনুষ্ঠিত হয়। সেমিনারে প্রধান বক্তা ছিলেন বাংলাদেশ ইনভেস্টমেন্ট ডেভলপমেন্ট অথরিটির এক্সিকিউটিভ চেয়ারম্যান কাজী এম আমিনুল ইসলাম।

সেমিনারের শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন আইইউবি’র উপাচার্য অধ্যাপক এম ওমর রহমান। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম ইনডিপেনডেন্ট ইউনিভার্সিটির বোর্ড অফ ট্রাস্ট্রিজের চেয়ারম্যান জনাব তৌহিদ সামাদ ও ট্রাস্টি সৈয়দ মাহমুদুল হক।

সেমিনারের মূল প্রবন্ধে জনাব ইসলাম বাংলাদেশের উদ্যোক্তা বিষয়ক বিভিন্ন বিষয় উপস্থাপন করেন। তিনি প্রতিষ্ঠিত ও সফল উদ্যোক্তাদের উদাহরন তুলে ধরে তরুণ শিক্ষার্থীদের শুধু চাকুরীর কথা না ভেবে বরং নিজেকে একজন সৃজনশীল ব্যবসায়ী উদ্যোক্তা হিসেবে গড়ে তোলার পরামর্শ দেন। জনাব ইসলাম বলেন, ‘দেশে উদ্যোক্তা সৃষ্টির লক্ষ্যে উচ্চশিক্ষার পাঠ্যক্রম ঢেলে সাজানো অত্যাবশ্যক।

সেমিনারে প্যানেল আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ব্যাংকের চীফ ইকোনমিস্ট ড. ফয়সাল আহমেদ, ভেঞ্চার ইনভেস্টমেন্ট পার্টনার্স বাংলাদেশ লিমিটেডের চেয়ারম্যান ড. জিয়া ইউ আহমেদ, গুগল বিজনেস গ্রূপের সিইও জনাব তারিকুল ইসলাম চৌধুরী এবং বাংলাদেশ ব্রান্ড ফোরামের প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালক জনাব শরিফুল ইসলাম।

প্যানেল আলোচকবৃন্দ ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে একটি উন্নত রাস্ট্র হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করার ক্ষেত্রে তরুন উদ্যোক্তারা গুরুত্বপূর্ন ভ’মিকা পালন করতে পারেন বলে অভিমত প্রকাশ করেন। তাঁরা বলেন, বর্তমানে প্রায় ৪৭ শতাংশ কর্মহীন যুবক অনিশ্চিত ভবিষ্যতের সম্মুখীন। তাই টেকসই উন্নয়নের লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে চাকুরীর জন্য বসে না থেকে সীমিত সামর্থ্যে ব্যবসায়ের উদ্যোগ গ্রহনের কোন বিকল্প নেই।

আইইউবি’র ট্রাস্টিবৃন্দ, বিভিন্ন স্কুলের ডীন, বিভাগীয় প্রধান, সিনিয়র শিক্ষক ও কর্মকর্তাবৃন্দ এবং শিক্ষার্থীরা এই শিক্ষামূলক সেমিনারে উপস্থিত ছিলেন। সেমিনার শেষে একটি প্রাণবন্ত প্রশ্নোত্তর পর্ব অনুষ্ঠিত হয়। সবশেষে আইইউবি-র স্কুল অফ বিজনেসের ডীন অধ্যাপক মোহা. আমিনুল করিম সকলের উদ্দেশ্যে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

পছন্দের আরো পোস্ট