প্রাণ ও প্রকৃতি রক্ষায় ব্যতিক্রমধর্মী শোভাযাত্রা

বাংলা বর্ষবরণ উপলক্ষে প্রাণ ও প্রকৃতি রায় শোভাযাত্রা করেছে তেল, গ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ বন্দর রা বিষয়ক জাতীয় কমিটির জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় শাখা। শনিবার বেলা ১২টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘অমর একুশ’র পাদদেশ থেকে শোভাযাত্রাটি শুরু হয়ে পুরাতন কলা ভবনের সামনে গিয়ে শেষ হয়।এসময় ‘গো ব্যাক, গেট আউট ইন্ডিয়া’ স্লোগানে সুন্দরবন বিনাশী রামপাল বিদ্যুৎ প্রকল্প থেকে ভারতকে সরে যাওয়া আহ্বান করা হয় এবং গানে গানে প্রাণ ও প্রকৃতি, সুন্দরবন, খনিজ সম্পদ ও নদী রার আহ্বান জানান শিক-শিার্থীরা।

শোভাযাত্রার সমাপনী বক্তব্যে কমিটির বিশ্ববিদ্যালয় শাখার আহ্বায়ক নৃবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক সাঈদ ফেরদৌস বলেন, ‘আমরা সব ধরনের বৈষম্য ও অনাচারের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে অঙ্গীকারাবদ্ধ। তেল, গ্যাস, বন্দর ও সুন্দরবনের মতো অমূল্য সম্পদ একবার হাতছাড়া হয়ে গেলে আমরা হাজার বছরেও তা ফিরে পাবো না। যেকোনও মুল্যে এগুলো রা করতে হবে।’ শোভাযাত্রায় তেল, গ্যাস, খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ বন্দর রা জাতীয় কমিটির সদস্যসচিব অধ্যাপক আনু মুহম্মদ, নৃবিজ্ঞান বিভাগের সভাপতি মির্জা তাসলিমাসহ বিভিন্ন বিভাগের শিক-শিার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিটি বিভাগ ও অনুষদ বণার্ট্য আয়োজনের মাধ্যমে বষবর্রণ উদযাপন করেন। এবং ছাত্র- শিক্ষক কেন্দ্রের আয়োজনে জমকালো সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও ব্যতিক্রমধর্মী ‘ব্যাঙেগর চান-চিনি’ আনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে ক্যাম্পাসে তরুন-তরুনী,ছাত্র-শিক্ষক,বয়োঃবৃদ্ধ সকলের প্রানের উচ্ছ্বাস দেখা যায়।

পছন্দের আরো পোস্ট