প্রীতি ফুটবল খেলায় ইবির কাছে পরাজিত বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) ও বিশ্ব ভারতী বিশ্ববিদ্যালয় ফুটবল দলের মধ্যে প্রীতি ফুটবল খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুর ১টায় ক্যাম্পাসের কেন্দ্রীয় ফুটবল মাঠে এ খেলা অনুষ্ঠিত হয়। এতে ১-০ গোলে বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়কে পরাজিত করে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় ফুটবল দল।

সূত্র মতে, মঙ্গলবার দুপুর ১২টায় প্রসাশন ভবনের সভাকক্ষে ভারতের বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে ‘শিক্ষা ও সংস্কৃতি বিনিময় সভা’ অনুষ্ঠিত হয়। এতে ছাত্র উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. রেজওয়ানুল ইসলামের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন-উর-রশিদ আসকারী উপস্থিত ছিলেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. শাহিনুর রহমান, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. সেলিম তোহা, ভারতের পশ্চিম বঙ্গের বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের শারীরিক শিক্ষা বিভাগের প্রফেসর সাগরিকা বন্দ্যোপাধ্যায়, ইবি রেজিস্ট্রার এস এম আব্দুল লতিফ, প্রক্টর অধ্যাপক ড. মাহবুবর রহমানসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক এবং বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের ফুটবল দলের খেলোয়াড়রা উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন-উর-রশিদ আসকারী বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু ও শ্রীমতি ইন্দিরা গান্ধীর মধ্যে সম্পর্ক ছিল অনন্য। স্বাধীনতা যুদ্ধে তারা আমাদের সবচেয়ে বেশী সহযোগীতা করেছিল। যা ইতিহাসে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। দু দেশের সম্পর্কের মধ্যে গান্ধীর সম্পর্ক এখনো নিবিড় রয়েছে।’

অনুষ্ঠান শেষে পর্যায়ক্রমে দুই দেশের জাতীয় সঙ্গীত বাজিয়ে স্ব-স্ব জাতীয় পতাকা ও বিশ্ববিদ্যালয়ের পতাকা উত্তোলন করার মধ্যে দিয়ে দুই দলের প্রীতি ফুটবল খেলা অনুষ্ঠিত হয়। এতে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় ১-০ গোলে বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয় ফুটবল দলকে পরাজিত করে। খেলার দ্বিতীয় অর্ধের শেষ মুহূর্তে দলের জন্য জয়সূচক গোলটি করেন ইবি শিক্ষার্র্থী রয়েল। শেষে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত হয়। এসময় ইবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন-উর-রশিদ আসকারী ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের শারীরিক শিক্ষা বিভাগের প্রফেসর সাগরিকা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাতে সৌজন্য স্মারক তুলে দেন।

পছন্দের আরো পোস্ট