রঙ্গিন ক্যাম্পাস জাবি

অপরূপ প্রাকতিক সৌন্দর্য আর নয়নাভিরাম জীববৈচিত্রের ভরপুর দেশের একমাত্র আবাসিক বিশ্ববিদ্যালয়। এ যেন কোলাহলপূর্ণ দূষিত শহরের পাশেই গ্রামবাংলার স্বর্গীয় সৌন্দর্যের আবাসভূমি। তাইতো দেশ সেরা এ বিদ্যাপিঠটি শিক্ষার্থীদের যেমন স্বপ্নের বিদ্যায়তন তেমনি প্রকৃতিপ্রেমী মানুষের জন্য প্রশান্তির তীর্থস্থান। প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের এ ক্যাম্পাসটি মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষ্যে বিচিত্র রং তুলির রংয়ে আরো রঙ্গিন হয়ে উঠেছে।একাত্তরের গণহত্যা ও ২৫ মার্চ পাকিস্থানী সেনাবাহিনী নিশৃংসতার স্বরণে আকাঁ হয়েছে দেশের বৃহত্তম আলপনা। শিক্ষার্থীদের নিজস্ব আগ্রহ ও অংশগ্রহনে এক রাতেই চিত্রায়িত হয় ২.৮ কিলোমিটার দীর্ঘ দেশের বৃহত্তম আলপনা। মনের মাধুরী মিশিয়ে আঁকা হয়েছে আলপনা। যে আলপনা বাঙ্গালির বহু বছরের পুরাতন লোকশিল্পের ঐতিহ্য। পহেলা বৈশাখে ঘরবাড়ি বৈশাখী রঙে সাজাতে অনেক আগে থেকেই আলপনা আঁকা হয়। ঐতিহ্যের এই ধারাবাহিকতায় এবার গণহত্যার প্রতিবাদে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে আলপনা আঁকা হয়। সারারাত আলপনা আঁকায় ব্যস্ত ছিলেন শিল্পীরা।

দৃষ্টিনন্দন এ আল্পনা জাবির মুল ফটক থেকে অমর একুশে,শহীদ মিনার, ট্রান্সপোর্ট, চৌরঙ্গী,ভিসির বাসভবন,স্কুল এন্ড কলেজ এলাকা হয়ে চলে যায় প্রায় বিশমাইল পর্যন্ত। আলপনা আঁকায় চারুকলা বিভাগ ও সাংস্কৃতিক জোটসহ ক্যাম্পাসের প্রায় তিন শতাধিক শিক্ষার্থী অংশ নেয়। এছাড়া বাইরে থেকে আসা শিল্পীরা আলপনা আঁকায় অংশ নেয়ার সুযোগ ছিল। সারারাত ধরে চলে আলপনা আঁকার কার্যক্রম। ক্যাম্পাস সূত্রে জানা যায়,এ আগে সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০১৩ সালে দেশের বৃহত্তম (১.৭৫ কিলোমিটার) আল্পনা আঁকা হয়। দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম আল্পনা ঢাকার মানিক মিয়া এভিনিউয়ে অবস্থিত রোড়ের আল্পনাটি। সর্বশেষ জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে আঁকা আল্পনা ২.৮ কিলোমিটার দীর্ঘ।আর এটি হচ্ছে বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ।

রেকর্ড়কৃত আল্পনা জাবিতে আকাঁয় এখানে শিক্ষার্থীদের মাঝে ব্যাপক উচ্ছ্বাস দেখা যাচ্ছে। আল্পনা আঁকতে আসা এক শিক্ষার্থী বলেন, ‘স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে দেশের দীর্ঘতম আল্পনা আঁকার প্রদক্ষেপে আমরা গর্ববোধ করছি,এই উদ্যোগের অংশ হতে পেরে খুব ভালো লাগছে।’এদিকে আল্পনার রংয়ে রঙ্গিন ক্যাম্পাসটি দেখতে ইতিমধ্যে ভীড় করছে দর্শণার্থীরা। হাবিবে মিল্লাত নামের পুরাতন ঢাকা থেকে আসা এক দর্শনার্থী বলেন,‘ক্যাম্পাসটি দেখতে অনেক সুন্দর আর আল্পার রংয়ে রঙ্গিন জাবি ক্যাম্পাসটি আরো মুগ্ধ করল।’

পছন্দের আরো পোস্ট