সংস্কৃতির মাধ্যমে প্রস্ফুটিত হয় একটি জাতির মানস-প্রবণতা

আজ (১৮ মার্চ) চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় কলা ও মানববিদ্যা অনুষদের উদ্যোগে সাংস্কৃতিক সপ্তাহ (১৮-২২ মার্চ) অনুষ্ঠান কলা ও মানববিদ্যা অনুষদের ২ নং গ্যালারিতে অনুষ্ঠিত হয়। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এ অনুষ্ঠান উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন চবি উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. শিরীণ আখতার। চবি কলা ও মানববিদ্যা অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. মো. সেকান্দর চৌধুরীর সভাপতিত্বে এবং দর্শন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক জনাব মাছুম আহমেদের পরিচালনায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ইংরেজি বিভাগের সভাপতি ও অন্তঃবিভাগ বিতর্ক প্রতিযোগিতার আহবায়ক জনাব মাইনুল হাসান চৌধুরী ও সংগীত বিভাগের সভাপতি এবং অন্তঃবিভাগ সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতার আহবায়ক জনাব সুকান্ত ভট্টাচার্য।

উপাচার্য তাঁর ভাষণে কলা ও মানববিদ্যা অনুষদের উদ্যোগে অন্তঃবিভাগ শিক্ষার্থীদের জন্য সাংস্কৃতিক সপ্তাহ আয়োজন করায় আয়োজবৃন্দকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও অভিনন্দন জানান। তিনি সমাজ-সভ্যতার ইতিহাস আলোকপাত করে বলেন, সংস্কৃতি হচ্ছে দেশ ও জাতির মনন ও কর্মের ব্যাঞ্জনাময় অভিপ্রকাশ। সংস্কৃতির মাধ্যমে প্রস্ফুটিত হয় একটি জাতির মানস-প্রবণতা। তাই তরুণ শিক্ষার্থীদের মুক্তমনা-দেশপ্রেমিক-সুনাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে বঙ্গবন্ধু তনয়া মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা শিক্ষার সাথে ক্রীড়া ও সংস্কৃতিকে সমন্বয় করে আমাদেরকে একটি যুগোপযোগী জাতীয় শিক্ষানীতি উপহার দিয়েছেন।

অনুষ্ঠানে বিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. মোহাম্মদ সফিউল আলমসহ কলা ও মানববিদ্যা অনুষদের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক ও বিপুল সংখ্যক শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন।

পছন্দের আরো পোস্ট