বঙ্গবন্ধুর বীরত্বপূর্ণ-গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাস শিশু-কিশোরদের প্রেরণার উৎস

মহাকালের মহানায়ক বাঙালির হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ সন্তান রাজনীতির মহাকবি স্বাধীন বাংলাদেশের মহান স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৯ তম জন্মদিন ‘জাতীয় শিশু দিবস’ উপলক্ষে আজ (১৭ মার্চ) চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্যোগে বিভিন্ন কর্মসূচি উদযাপিত হয়। এ উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয় বঙ্গবন্ধু চত্বরে ‘জাতির জনক বঙ্গবন্ধু’ শীর্ষক শিশু চিত্রাংকন প্রতিযোগিতায় প্রধান অতিথির ভাষণ দেন এবং প্রতিযোগিতা উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. শিরীণ আখতার-এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন চ.বি. প্রক্টর জনাব মোহাম্মদ আলী আজগর চৌধুরী।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু সহ সকল শহীদদের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত এবং দেশের শান্তি-সমৃদ্ধি-উন্নতি ও মঙ্গল কামনা করে বিশেষ মোনাজাত পরিচালনা করেন চবি কেন্দ্রীয় মসজিদের মুয়াজ্জিন হাফেজ মো. শাহ আযম। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন ডেপুটি রেজিস্ট্রার (তথ্য) জনাব মো. ফরহাদ হোসেন খান।

উপাচার্য তাঁর ভাষণে বাঙালি জাতির অবিসংবাদিত নেতা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। তিনি জাতীয় চারনেতা, মহান মুক্তিযুদ্ধে ত্রিশলক্ষ শহীদ, ‘৭৫ এর ১৫ আগস্ট ঘাতক হায়েনাদের হাতে নির্মমভাবে শহীদ বঙ্গবন্ধু পরিবারের সদস্যদের গভীর শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করেন এবং মহান মুক্তিযুদ্ধে নির্যাতিত জায়া-জননী-কন্যার প্রতি বিশেষ সম্মান প্রদর্শন করেন। উপাচার্য বঙ্গবন্ধুর বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক জীবনের বিভিন্ন দিক আলোকপাত করে বলেন, অসাধারণ মেধাবী, মানবমুক্তির দূত, অকুতোভয় মহান নেতা বঙ্গবন্ধু মানবসভ্যতার ইতিহাসে এক অসাধারণ ক্ষণজন্মা পুরুষ।

উপ-উপাচার্য তাঁর ভাষণে শিশু-কিশোরদের জাতির জনক বঙ্গবন্ধুকে সঠিকভাবে ধারণ করে আলোকিত জীবন গড়ার আহবান জানান।

পূর্বাহ্নে উপাচার্য ও উপ-উপাচার্য বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারের সকলকে সাথে নিয়ে বঙ্গবন্ধু চত্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পমাল্য অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এরপর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন চ.বি. বঙ্গবন্ধু পরিষদ। বঙ্গবন্ধুর ৯৯তম জন্মদিন উপলক্ষে উপাচার্য অতিথিবৃন্দকে সাথে নিয়ে কেক কাটেন। আজকের চিত্রাংকন প্রতিযোগিতায় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসস্থ বিভিন্ন বিদ্যালয়ের প্লে গ্র“প থেকে ৫ম শ্রেণী পর্যন্ত প্রায় ১০০০ জন শিশু অংশগ্রহণ করেন।

অনুষ্ঠানে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিনবৃন্দ, শিক্ষক সমিতির নেতৃবৃন্দ, প্রভোস্টবৃন্দ, রেজিস্ট্রার, বিভাগীয় সভাপতি এবং ইনস্টিটিউট ও গবেষণা কেন্দ্রের পরিচালকবৃন্দ, শিক্ষকবৃন্দ, অফিসার সমিতি, কর্মচারী সমিতি, কর্মচারী ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দ, বঙ্গবন্ধু পরিষদের নেতৃবৃন্দ, অফিস প্রধানবৃন্দ, সাংবাদিক সমিতির সদস্যবৃন্দ এবং শিশু-কিশোরদের অভিভাবকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় সংগীত বিভাগের পরিবেশনায় অনুষ্ঠিত হয় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

উপাচার্য বঙ্গবন্ধু চত্বরে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা ঘোষিত রোহিঙ্গা সমস্যার স্থায়ী সমাধানের আহবানে কক্সবাজার আর্ট ক্লাবের উদ্যোগে আয়োজিত ‘মানবতার জন্য শিল্প’ শীর্ষক চিত্র প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন।

পছন্দের আরো পোস্ট