প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ে হিসাব বিজ্ঞান বিভাগে প্রদর্শনী

প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. অনুপম সেন বলেছেন, প্রাচীন সমাজে ব্যবসা-বাণিজ্য বড়োভাবে গড়ে না উঠায় বিনিময় প্রথা চালু ছিল। তখন বস্তুর সাথে বস্তুর বিনিময় হতো। আমরা যে সিভিল সোসাইটির কথা বলি, তা মূলত গড়ে উঠে বস্তুর পণ্য হওয়ার সময় থেকে। যৌক্তিক হিসাব বিজ্ঞান গড়ে উঠার পরে বিশালভাবে ব্যবসা-বাণিজ্য এবং পরবর্তীকালে পুঁজির ক্রমবর্ধমান বিকাশ ঘটে।

আজ (১৪ মার্চ ২০১৮) বুধবার, নগরীর দামপাড়াস্থ প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয় ভবনে হিসাব বিজ্ঞান বিভাগে উক্ত বিভাগের উদ্যোগে ‘প্রফেশনাল অ্যাকাউন্ট্যান্সি: এ গ্লোরিয়াস ক্যারিয়ার এহেড’ শীর্ষক সেমিনার ও প্রদর্শনী উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি এমন একটি আয়োজনের জন্য হিসাব বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষিকা ও শিক্ষার্থীদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে হিসাব বিজ্ঞানের ইতিহাস ও কৌটিল্যের অর্থশাস্ত্রের গুরুত্ব তুলে ধরেন।

বেলা ১২.৩০ টায়, হিসাব বিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক স্টিভ অস্কার ডি’ রোজারিও-র সভাপতিত্বে এ-অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন হিসাব বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক অমল ভূষণ নাগ ও ব্যবসা-শিক্ষা অনুষদের সহকারী ডিন মঈনুল হক। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন শিক্ষা সহকারী নাঈমা নাজনিন।

আলোচনা অনুষ্ঠানের পূর্বে প্রধান অতিথি উপাচার্য প্রফেসর ড. অনুপম সেন প্রদর্শনী ঘুরে দেখেন। প্রদর্শনীতে আধুনিক হিসাব বিজ্ঞান, হিসাব বিজ্ঞানের ইতিহাস, মেসোপটেমিয়া সভ্যতা, ব্যাংকিং-এর ইতিহাস, স্বাধীনতা যুদ্ধ, হিসাব বিজ্ঞানের জনকের ছবি ও তথ্য, কৃষি উন্নয়ন, অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি প্রভৃতি প্রজেক্ট ও বিভিন্ন স্টল প্রদর্শন করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন ব্যবস্থাপনা বিভাগের চেয়ারম্যান সুজন কান্তি বিশ্বাস, মার্কেটিং বিভাগের চেয়ারম্যান সাদিয়া আখতার, ফিন্যান্স বিভাগের চেয়ারম্যান আফসানা ইয়াসমিন ও প্রভাষক এ কে এম নাসিম উদ্দিন।

পছন্দের আরো পোস্ট