ইবিতে পিঠা উৎসব অনুষ্ঠিত

“বাঙালিয়ানায় সাজবো সাজ, পিঠা উৎসবে মাতব আজ” এই শ্লোগানকে সামনে নিয়ে রবিবার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের হিসাব বিজ্ঞান ও তথ্য পদ্ধতি বিভাগের এম বি এ ১৯তম ব্যাচ, সেশন ২০১৫-১৬ উদ্যোগে শারীরিক শিক্ষা বিভাগের সামনে খোলা চত্তরে পিঠা উৎসবের আয়োজন করা হয়। পিঠা উৎসব অনুষ্ঠানে হিসাব বিজ্ঞান ও তথ্য প্রযুক্তি বিভাগের সভাপতি প্রফেসর ড. শেলীনা নাসরীন এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য প্রফেসর ড. মোঃ হারুন-উর-রশিদ আসকারী বলেন পিঠা উৎসব গ্রাম বাংলার প্রাচীনতম উৎসবগুলোর মধ্যে একটি। যা গ্রামীন লোক সাংস্কৃতির পরিচয় বহন করে আসছে। বর্তমান তথ্য প্রযুক্তির যুগে এই উৎসবটি আজ হারিয়ে যেতে বসেছে কিন্তুু হিসাব বিজ্ঞান ও তথ্য পদ্ধতি বিভাগ আজ যে প্রায় হারিয়ে যাওয়া উৎসবটিকে ক্যাম্পাসে জাকজমকভাবে পালন করছে এজন্য তিনি বিভাগটির সকল শিক্ষক, কর্মকর্তা ও ছাত্র-ছাত্রীদের ধন্যবাদ জানান। তিনি বলেন সারা দেশ দেখবে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে একটি বিলুপ্ত উৎসব হচ্ছে। তিনি আশা প্রকাশ করেন পিঠা উৎসবসহ বিভিন্ন উৎসবের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচয় সঠিকভাবে দেশ ও জাতির কাছে ফুটে উঠবে। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ট্রেজারার প্রফেসর ড. মোঃ সেলিম তোহা বলেন বিশ্ববিদ্যালয়ে শুধুমাত্র পড়াশুনায় হয় না বরং সাংস্কৃতিক কর্মকান্ড, খেলাধুলা ও পিঠা উৎসবও হয়।

তিনি আরো বলেন আমাদের অতীতকে ভুলে গেলে চলবে না, পিঠার সাথে রয়েছে মায়ের সম্পর্ক। তাই পিঠা খেতে গেলে মায়ের কথা মনে পড়ে। অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন রেজিস্ট্রার (ভারঃ) এস এম আব্দুল লতিফ, প্রক্টর প্রফেসর ড. মাহবুবর রহমান প্রমুখ। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ফিন্যান্স এন্ড ব্যাংকিং বিভাগের সভাপতি সুতাপ কুমার ঘোষ, প্রফেসর ড. অরবিন্দু সাহা, শারীরিক শিক্ষা বিভাগের পরিচালক ড. মোঃ সোহেল, গ্রন্থাগারিক (ভারঃ) মু. আতাউর রহমান, শারীরিক শিক্ষা বিভাগের উপ পরিচালক শাহ আলম, শেখ মোস্তাফিজুর রহমান, মোঃ আসাদুর রহমান ও হিসাব বিজ্ঞান ও তথ্য পদ্ধতি বিভাগের ছাত্র -ছাত্রীবৃন্দ। পিঠা উৎসব অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন হিসাব বিজ্ঞান ও তথ্য পদ্ধতি বিভাগের শিক্ষক ড. মোঃ জাকির হোসেন।

//স

পছন্দের আরো পোস্ট