চবিতে পদার্থবিদ্যা অ্যালামনাই এসেসিয়েশনের উদ্বোধনী ও সম্মিলনী অনুষ্ঠান

বিপুল উৎসাহ ও উদ্দীপনা সহকারে ২২ ডিসেম্বর ২০১৭ তারিখ দিনব্যাপি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় পদার্থবিদ্যা অ্যালামনাই এসোসিয়েশন (সিইউপিএএ) এর উদ্বোধনী ও সম্মিলনী অনুষ্ঠান চবি সমাজ বিজ্ঞান অনুষদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এ অনুষ্ঠান উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী।

উপাচার্য বিজয়ের মাসে শিশির রাত রৌদ্রজ্জ্বোল শীতের সকালে অনুষ্ঠানে আগত সকলকে চ.বি. ক্যাম্পাসে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান। তিনি বলেন, বিজ্ঞান অনুষদের অন্তর্গত পদার্থবিদ্যা বিভাগ একটি ঐতিহ্যবাহী অন্যতম বিভাগ। শুরু থেকে এ বিভাগ তার নিজস্ব স্বকীয়তায় অত্যন্ত মেধাবী, প্রজ্ঞাবান জ্ঞানী-গুণী শিক্ষকদের দ্বারা পরিচালিত হয়ে আসছে। তিনি বলেন, জ্ঞান-বিজ্ঞান চর্চার মাধ্যমে এ বিভাগ দেশে শিক্ষিত, দক্ষ ও আধুনিক বিজ্ঞানমনস্ক মানবসম্পদ উৎপাদন করে চলেছে। যাঁরা আজ দেশে-বিদেশে স্ব স্ব কর্মক্ষেত্রে সুপ্রতিষ্ঠিত। তাঁদেরই সম্মিলিত প্রয়াসে আজকে পদার্থবিদ্যা অ্যালামনাই এসোসিয়েশনের উদ্বোধনী ও সম্মিলনী অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়েছে। তিনি এ আয়োজনকে সাধুবাদ জানান। উপাচার্য দৃঢ় কন্ঠে আত্মপ্রত্যয়ী হয়ে বলেন, এ অ্যালামনাই এসোসিয়েশনের সদস্যবৃন্দ চবি পদার্থ বিদ্যা বিভাগ তথা চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্বিক উন্নয়ন ও অগ্রগতিতে তাঁদের ইতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গী দিয়ে এ বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়নে দৃশ্যমান অবদান রাখবে এটাই প্রত্যাশিত। মাননীয় উপাচার্য পদার্থবিদ্যা বিভাগের অ্যালামনাই এসোসিয়েশনের অগ্রযাত্রার সার্বিক সাফল্য কামনা করেন। মাননীয় উপাচার্য ফিতা কেটে অনুষ্ঠানের গ্র্যান্ড ওফেনিং এবং স্মরণিকা ২০১৭ ‘দীপন’ এর মোড়ক উন্মোচন করেন।

চবি পদার্থবিদ্যা বিভাগ ও সিইউপিএএ-এর সভাপতি প্রফেসর ড. মিহির কুমার রায়ের সভাপতিত্বে এবং পদার্থ বিদ্যা বিভাগের প্রফেসর ড. এ কে এম মাঈনুল হক মিয়াজীর পরিচালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সিইউপিএএ-এর সাধারণ সম্পাদক জনাব এ.এইচ.এম. হাবিবুল্লাহ। এছাড়ও অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন পদার্থবিদ্যা বিভাগের বরিষ্ট প্রফেসর ড. অরুণ কুমার দেব, প্রফেসর ড. দিল আফরোজ বেগম ও প্রফেসর ড. মোহাম্মদ নাসিম হাসান। এতে বিভাগের প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের মধ্যে বিজিসি ট্রাস্ট, চট্টগ্রামের প্রফেসর ড. সুদীপ্ত দেব, পরমাণু শক্তি কমিশন, ঢাকা’র মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মো. শফিকুর রহমান, এনআইটি, চট্টগ্রামের পরিচালক জনাব আহসান হাবিব, সহকারী রেভিনিউ অফিসার জনাব মো. মুজিবুর রহমান, মানিকগঞ্জ সরকারী কলেজের প্রভাষক জনাব লুৎফুর রহমান বাবু, ৩৬তম বিসিএস প্রশাসনের সুপারিশপ্রাপ্ত জনাব হেদায়েত হোসেনসহ উক্ত বিভাগের প্রাক্তন শিক্ষার্থীবৃন্দ স্মৃতিচারণমূলক বক্তব্য রাখেন। দিনব্যাপি অনুষ্ঠানমালায় ছিল-বর্ণাঢ্য র‌্যালি, আলোচনা অনুষ্ঠান, ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও র‌্যাফেল ড্র। অনুষ্ঠানে উক্ত বিভাগের বিপুল সংখ্যক প্রাক্তন শিক্ষার্থী তাদের পরিবার-পরিজন নিয়ে অংশগ্রহণ করেন।

//স

পছন্দের আরো পোস্ট