চবিতে যোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী অনুষ্ঠিত

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় যোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের ২৩ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে উক্ত বিভাগ এবং বিভাগের এলামনাই এসোসিয়েশনের উদ্যোগে আজ (১০ ডিসেম্বর) চবি সমাজ বিজ্ঞান অনুষদ মিলনায়তনে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এ অনুষ্ঠানে ভাষণ দেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী। এতে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন চবি উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. শিরীণ আখতার ও সমাজ বিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. ফরিদ উদ্দিন আহামেদ। সম্মানিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিভাগের প্রতিষ্ঠাকালীন সভাপতি প্রফেসর হায়াত হোসেন।

উপাচার্য তাঁর ভাষণে যোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বিভাগের শিক্ষক, প্রাক্তন-বর্তমান শিক্ষার্থীদের আন্তরিক অভিনন্দন ও প্রাণঢালা শুভেচছা জানান। তিনি বলেন, সমাজ বিজ্ঞান অনুষদের অন্তর্গত এ বিভাগ হাটি হাটি পা পা করে সগৌরবে ২৩টি বছর অতিক্রম করেছে। এ বিভাগের শিক্ষার্থীরা বাংলাদেশের বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ায়সহ সরকারী-বেসরকারী বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে অধিষ্ঠিত থেকে অত্যন্ত সততা, দক্ষতা ও সুনামের সাথে কাজ করে যাচ্ছেন। এটি এ বিভাগ তথা চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য অত্যন্ত গৌরব ও আনন্দের। প্রসঙ্গক্রমে উপাচার্য বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণে বঙ্গবন্ধু তনয়া মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা সাংবাদিকতা ও সংবাদকর্মীদের অবাধ তথ্য প্রবাহের সুযোগ অবারিত করেছেন। সার্বিক সুযোগ-সুবিধার সদ্ব্যবহারের মাধ্যমে আমাদের সাংবাদিকরা নিজেদের যোগ্যতা ও দক্ষতা উন্নয়নের পাশাপাশি দেশ-জাতির উন্নয়নে বস্তুনিষ্ট সংবাদ পরিবেশন করে ইতিবাচক ভূমিকা পালন করবেন উপাচার্য এ প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন। উপাচার্য উক্ত বিভাগ এবং এলামনাই এসোসিয়েশন প্রকাশিত ম্যাগাজিনের মোড়ক উন্মোচন করেন।

চবি যোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সভাপতি জনাব মো. আবুল কালাম আজাদের সভাপতিত্বে এবং উক্ত বিভাগের সহকারী অধ্যাপক জনাব মাধব চন্দ্র দাশ ও বিভাগের এলামনাই এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক জনাব হামিদ উল্লাহ’র পরিচালনায় এতে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক চবি প্রক্টর জনাব মোহাম্মদ আলী আজগর চৌধুরী, সহকারী অধ্যাপক জনাব সায়মা আলম ও বিভাগের এলামনাই এসোসিয়েশনের সভাপতি জনাব শিমুল নজরুল। শিক্ষার্থীদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিভাগের প্রাক্তন শিক্ষার্থী জনাব ফজলুল করিম, তাহমিনা তানিয়া, তারেক মাহমুদ প্রমুখ। পরে উক্ত বিভাগের শিক্ষার্থীদের পরিবেশনায় অনুষ্ঠিত হয় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। পূর্বাহ্নে বিভাগের শিক্ষক, প্রাক্তন ও বর্তমান শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করে।

পছন্দের আরো পোস্ট