নারী  

এসেছি এই ভুবনে হয়ে রাজকুমারী,
তখনও বুঝিনি এই ভুবনে আমি এক জাদুকরী।
যখন হলাম আমি কিশোরী,
উড়ে বেড়াই যেন আমি এক পানকৌড়ি।
যুবতীতে পা দিয়ে করলাম শেষ কৈশোরকে,
সময়তো এখনই জয় করার জীবনযুদ্ধকে।
এতদিন আলাদা করিনি আমি যে মেয়ে,
কিন্তু সমাজের ভাবনায় গিয়েছি পিছিয়ে।

এতদিন যে ছিল রাজকন্যা
সে হল আজ রানী,
সবাই যেখানে শুনত তার বায়না
সেই শুনবে সবার বাণী।

চলে আসছে বয়সের ভার,
কারন নারী নেই যে এখন মেয়ে আর।
শত কাজের মাঝে বাধর্ক্য দিচ্ছে যে উকি,
জীবনের দিন শেষ হতে আর নেই বাকী।
নারী তুমি নারী,
অনেক কষ্টের পথ দিয়েছো যে পাড়ি।
সর্বোচ্চ চূড়ায় উঠেছি আমি,
দেশ স্বাধীনে শহীদ হয়েছো তুমি।
চাঁদের ন্যায় সুন্দরী তুমি নারী,
চাঁদে যেতে দিয়েছো অনেক পথ পাড়ি।
নারী তুমি হয়ে শিক্ষিত,

এ জাতিকে করবে দীক্ষায় দীক্ষিত।
তাই বারেবারে কবির কথা স্মরণ করি,
এ জগতের সকল কল্যাণ অধের্ক করিয়াছে নারী।

পছন্দের আরো পোস্ট