খুবিতে একাডেমিক কাউন্সিলিং এন্ড মোটিভেশন শীর্ষক কর্মশালা

আজ (৩০ মার্চ)বৃহস্পতিবার সকাল ৯ টায় খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য জগদীশ চন্দ্র বসু একাডেমিক ভবনের সাংবাদিক লিয়াকত আলী মিলনায়তনে ইনস্টিটিউশনাল কোয়ালিটি অ্যাসুরেন্স সেল (আইকিউএসি) এর উদ্যোগে পরিসংখ্যান, ব্যবসায় প্রশাসন, মানব সম্পদ ও ব্যবস্থাপনা এবং আইন ও বিচার এ চারটি ডিসিপ্লিনের প্রথম বর্ষে ভর্তিকৃত নতুন শিক্ষার্থীদের জন্য একাডেমিক কাউন্সিলিং এন্ড মোটিভেশন শীর্ষক দিনব্যাপী কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়।

এর মধ্য দিয়ে চলতি মাসে ৬দিনে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথমবর্ষে ভর্তি হওয়া ২৮টি ডিসিপ্লিনের সকল শিক্ষার্থীকে উচ্চশিক্ষায় গুণগতমান অর্জনের জন্য করণীয় বিষয়ে ধারণা দেয়া হয়। গতবছর শুরু হওয়া এ ধরণের কর্মশালা এবছর দ্বিতীয় পর্যায়ে অনুষ্ঠিত হলো। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের আদর্শ নাগরিক হিসেবে গড়ে তোলার পাশাপাশি তাদেরকে দক্ষ জনশক্তিতে পরিণত করে বিশ্ব প্রতিযোগিতায় টিকে থাকার উপযোগী হিসেবে গড়ে তোলাই এ কর্মশালার মূল উদ্দেশ্য বলে উল্লেখ করেন কর্মশালার উদ্বোধক প্রধান অতিথি উপাচার্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ফায়েক উজ্জামান।

আইকিউএসির পরিচালক প্রফেসর ড. আহমেদ আহসানুজ্জামানের সভাপতিত্বে কর্মশালায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ব্যবস্থাপনা ও ব্যবসায় প্রশাসন স্কুলের ডিন প্রফেসর মেহেদী হাসান মোঃ হেফজুর রহমান, আইন স্কুলের ডিন প্রফেসর ড. মোঃ ওয়ালিউল হাসানাত, বিজ্ঞান প্রকৌশল ও প্রযুক্তিবিদ্যা স্কুলের ডিন (চলতি দায়িত্ব) প্রফেসর ড. শেখ মুরসালীন মামুন। পরে কর্মশালায় বিষয়ভিত্তিক পেপার উপস্থাপন করেন উপাচার্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ফায়েক উজ্জামান, নগর ও গ্রামীণ পরিকল্পনা ডিসিপ্লিনের প্রফেসর ড. মাহবুবুল হক, বায়োটেকনোলজি এন্ড জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং ডিসিপ্লিনের প্রফেসর ড. এস এম মাহবুবুর রহমান, এগ্রোটেকনোলজি ডিসিপ্লিনের প্রফেসর ড. মোঃ সারওয়ার জাহান, এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্স ডিসিপ্লিনের প্রফেসর ড. দিলীপ কুমার দত্ত এবং এগ্রোটেকনোলজি ডিসিপ্লিনের প্রফেসর ড. সরদার শফিকুল ইসলাম।

অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন আইকিউএসির অতিরিক্ত পরিচালক প্রফেসর ড. সমীর কুমার সাধু। এ সময় ব্যবসায় প্রশাসন ডিসিপ্লিন প্রধান প্রফেসর মোঃ মিজানুর রহমান, মানব সম্পদ ও ব্যবস্থাপনা ডিসিপ্লিন প্রধান প্রফেসর ফিরোজ আহমেদ, আইন ও বিচার ডিসিপ্লিন প্রধান প্রফেসর ড. মোঃ ওয়ালিউল হাসানাত, পরিসংখ্যান ডিসিপ্লিন প্রধান(চলতি দায়িত্ব) মাসুদুল ইসলাম ও আইকিউএসির অতিরিক্ত পরিচালক প্রফেসর ড. কামরুল হাসান তালুকদারসহ সংশ্লিষ্ট ডিসিপ্লিনসমূহের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ফায়েক উজ্জামান শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে আরও বলেন,আমাদেরকে আত্মপ্রত্যয়ী, সত্যনিষ্ঠ, যু্িক্তনিষ্ঠ ও মানবতাবাদী হতে হবে। যারা যুক্তি মানে না, মানবিক মূল্যবোধ ও ইসলাম ধর্মের মর্মবাণী অনুসরণ করে না তারা বিপথগামী হয়ে ওঠে। তরুণ প্রজন্ম যখন প্রযুক্তিমুখি, প্রগতিমুখি, শিক্ষামুখি, কর্মসংস্থানমুখি তখন তাদেরকে একাত্তরের পরাজিত শক্তি ও তাদের দোসররা জঙ্গি সম্পৃক্ত করে নানা প্রলোভন দেখিয়ে বিপথগামী করে তুলতে সচেষ্ট। আরেকটি শ্রেণি সমাজে মাদকাসক্তির বিস্তার ঘটাচ্ছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের তরুণ শিক্ষার্থীদেরকে এসকল দিকে সচেতন থাকতে হবে এবং দেশ ও সমাজ বিরোধী, মানবতা বিরোধী, ধর্মবিরোধী এসব কর্মকা-ের বিরুদ্ধে সোচ্ছার হতে হবে।

তিনি আরও বলেন বর্তমানে সারা পৃথিবীতে প্রতিযোগিতার সৃষ্টি হয়েছে, পরিবর্তন চলছে। এই বিশ্ব প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে হলে উচ্চশিক্ষায় গুণগতমান অর্জন অপরিহার্য। তাই তিনি শিক্ষার্থীদের প্রতি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম বছর থেকেই অত্যন্ত নিয়মানুবর্তী হয়ে, লক্ষ্য নির্ধারণ করে, আত্মপ্রত্যয়ী হয়ে নিরন্তর অধ্যবসায়ের আহবান জানান। তিনি বলেন শিক্ষার মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে অনুধাবন করা। ক্লাসে কোনো সমস্যা হলে শিক্ষকদের প্রশ্ন করতে হবে, সমস্যার সমাধান না হওয়া পর্যন্ত চেষ্টা করতে হবে। তিনি কেবল ক্লাসের শিক্ষাই নয়, তাদেরকে সহশিক্ষামূলক কার্যক্রমে অংশগ্রহণ এবং গ্রুপ স্টাডির পরামর্শ দেন।

পছন্দের আরো পোস্ট