ওয়াইএসএসই এর স্টার্টআপ বিষয়ক কর্মশালা সম্পন্ন

বাংলাদেশের শীর্ষস্থানীয় সামাজিক উদ্যোক্তা বিষয়ক যুব সংগঠন ইয়ুথ স্কুল ফর সোশ্যাল এন্টাপ্রেনার্স ওয়াই.এস.এস.ই এর আয়োজনে ২৭ মার্চ, রাজধানী ঢাকার ধানমন্ডিস্থ ই.এম.কে সেন্টারে অনুষ্ঠিত হয়ে গেলো স্টার্টআপ বিষয়ক কর্মশালা ‘স্টার্টআপ গেইটওয়ে’।

বাংলাদেশের তারুণ্য শক্তির সক্রিয় সম্পৃক্ততা সামাজিক সমস্যাদি দূরীভূত করতে সহায়ক ভূমিকা রাখতে পারে কিন্তু ক্রমবর্ধমান জনসংখ্যাবৃদ্ধি এই অগ্রযাত্রার অন্তরায়। যুবদের মধ্যে কার্যকরী উদ্যোগ এবং উদ্যোক্তা সহিষ্ণু মনোবাসনা জনপ্রিয় হলে উদ্যোক্তার স্বীয় বেকারত্ব নিরসনের সাথে সমাজের ইতিবাচক পরিবর্তনে সহায়ক ভূমিকা রাখবে। কিন্তু যথাযথ পরিকল্পনা আর পরিমিত জ্ঞানের অভাবে আমাদের যুবকদের ‘স্টার্টআপ’ গুলো সাফল্যের শিখরে আরোহণের পূর্বেই মুখ তোবড়ে অতলে হারাচ্ছে। উক্ত কর্মশালায় শূন্য থেকে শুরু স্টার্টাআপ এর সাফল্যমণ্ডিত রূপান্তরের কার্যকরী উপায় এবং বাস্তব জীবনের সফলতা ও ব্যর্থতার গল্প নিয়ে বাংলাদেশের প্রখ্যাত ট্রেইনার এবং সফল উদ্যোক্তাদের দিকনির্দেশনা মূলক বক্তৃতা সমবেত প্রায় ১০০জন স্বপবাজ তরুণকে অনুপ্রাণিত করে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় নিরাপদ ডেভেলপমেন্ট ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ও আবাসননিউজ এর সম্পাদক ইবনুল সাঈদ রানা বলেন, “যতো সামনে যাই ততই পথ বেড়ে যায়। যথো জানতে চাই, ততই অজানা বেড়ে যায়। বটবৃক্ষের ন্যায় ওয়াই.এস.এস.ই এর বাস্তবজ্ঞান সমৃদ্ধ এই আয়োজন তরুণ উদ্যোক্তা তৈরিকরণে সহায়ক ভূমিকা রাখবে, তরুণ উদ্যোক্তারা দেশের সম্পদ। তারা পরিবারের নেতৃত্ব দিবে, পরিবার থেকে পরবর্তীতে দেশে নেতৃত্ব দিবে।”

অনুষ্ঠানে টাইমেক্স গ্রুপ সিঙ্গাপুরের চেয়ারম্যান সৌরভ আলজাহিদ বলেন, ” স্বপ্ন অনুযায়ী কাজ করতে হবে তাহলেই স্বপ্নের বাস্তবায়ন সম্ভব। “

ঢাকা ব্যাংক লিমিটেডের হেড অব কমিউনিকেশন্স অ্যান্ড ব্র্যান্ডিং আনোয়ার ইহতেশাম খন্দকার বলেন, ” ডিজিটাল মার্কেটিং এ পর্যবেক্ষণ ও পরিবর্তনের সমন্বয়ে সর্বদা নিরীক্ষাধর্মী হতে হবে। অর্থাৎ, ভোক্তার মনোযোগ এবং ইতিবাচকতায় আপনার প্রতিষ্ঠানের মুনাফা অর্জিত হলেই আপনার মার্কেটিং সৃজনধর্মী। “

Post MIddle

অপটিমাক্স কমিউনিকেশন্স লিমিটেডের সিইও ও পরিচালক ইকবাল বাহার জাহিদ বলেন, ” স্বপ্ন দেখুন, সাহস করুন, শুরু করুন, লেগে থাকুন, সাফল্য আসবেই।”

গ্রিকি সোশ্যাল এর সহপ্রতিষ্ঠাতা মুহাম্মদ সাইমুম হোসাইন বলেন, ” ঝোঁকে উদ্যোক্তা না হয়ে মনেপ্রাণে উদ্যোক্তা হোন।”

প্রখ্যাত ফটোগ্রাফার পীত রেজা বলেন, ” নো শব্দটি আমার অতি প্রিয়, সারাজীবন পারবোনা শুনেই বড় হয়েছি। নো কে ইয়েস করতে ইচ্ছা আর খিদা ছিল বলেই আজ আমি এখানে।”

এছাড়া, রোয়ার বাংলা ও জিরো টু ইনফিনিটি এর সম্পাদক আবদুল্লাহ আল মাহমুদ, ওয়াই.এস.এস.ই এর মেন্টর দেবাশিস ভট্টাচার্য, ওয়াই.এস.এস.ই এর সহ-সভাপতি ও কাবুলিওয়ালা ডটকম এর প্রতিষ্ঠাতা জাবেদ মাওলা সহ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

‘স্টার্টআপ গেইটওয়ে’ স্বপবাজ তরুণদের তথা সমাজের পরিবর্তনে ক্ষুদ্রাতিক্ষুদ্র হলেও ইতিবাচক অথচ কার্যকরী ভূমিকা রাখবে বলে ওয়াই.এস.এস.ই এর প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি, শেখ মোহাম্মদ ইউসুফ হোসেন অভিমত পোষণ করেন।

পছন্দের আরো পোস্ট