প্রিয় বর্ণমালারা

চতুর্দেয়ালে ঘুরতে থাকে
স্বরবর্ণ আর ব্যঞ্জন বর্ণেরা,
আজ যে তারা বিদেশি শব্দের কাছে বন্দী!
আমিও ঘুরপাক খেতে খেতে ওদের দলভুক্ত হই;
আধুনিকত্বের বেড়াজাল আমি ছিড়তে পারিনা।
ঠিক কবে থেকে বুঝেছিলাম বাংলা আমার মা, মায়ের ভাষা, আমার মনে নেই।
আশ্চর্য এক খরস্রোতের মুখোমুখি এ বাংলা আমার,
বেড়িবাঁধ মানেনা তারা; যারা ঐ আধুনিক ভাষাপ্রেমিক!
কিছু কিছু বর্ণের সাথে আমার ভাব হয়-
প্রেমে পড়ে যাই অবচেতনে,
দেয়াল ভেঙে পালাবার দারুণ যুক্তি করি।
একটা দুইটা তিনটা, কখনোবো আরো অধিক নিয়ে-
বিন্যাস সমাবেশের সুত্রে বসাই;
শত শত শব্দ তৈরি করি বাংলা ভাষায়।
তারপর,
এখানে সেখানে, যেখানে যেটা বসে; সাজাতে থাকি।
শক্তিশালী হয়ে ওঠে বাংলা গান, কবিতা, গল্প, উপন্যাস-
আরো কতশত বাংলার রূপ!
আমি পারছি,
আমি পারব,
আমাকে পারতেই হবে।
বাংলাকে ভেজালমুক্ত করতে আমি প্রস্তুত-
সেই কবে থেকে।
পছন্দের আরো পোস্ট