কুমারখালীতে শিক্ষার্থীদের হেলথ কার্ড প্রদান

উপজেলা পরিষদের অর্থায়নে কুমারখালীতে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের বিনামূল্যে স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিতকল্পে হেলথ কার্ড প্রদান করা হয়েছে। সম্প্রতি উপজেলার হোগলা-মহেন্দ্রপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রায় তিন শতাধিক শিক্ষার্থীর স্বাস্থ্য পরীক্ষা শেষে তাদের হাতে হেলথ কার্ড তুলে দেয়া হয়েছে। উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল মান্নান খান শিশু শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা ও হেলথ কার্ড প্রদান কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন এবং দুপুরে আনুষ্ঠানিকভাবে শিক্ষার্থীদের হাতে হেলথ কার্ড তুলে দেন তিনি।

এ উপলক্ষে উপজেলা শিক্ষা অফিসার সিরাজুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল মান্নান খান। বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আকুল উদ্দিন, জগন্নাথপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফারুক আহমেদ খান, হোগলা-মহেন্দ্রপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক প্রবীর কুমার ঘোষ প্রমূখ।

উপজেলা শিক্ষা অফিসার সিরাজুল ইসলাম জানান, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের উদ্যোগে ও উপজেলা পরিষদের অর্থায়নে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের বিনামূল্যে স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিতকল্পে তৃতীয় থেকে পঞ্চম শ্রেণীতে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা শেষে হেলথ কার্ড প্রদান করা হচ্ছে। গত অর্থবছর থেকে এ পর্যন্ত প্রায় ৬ হাজারের অধিক সংখ্যক শিক্ষার্থীকে স্বাস্থ্য পরীক্ষা শেষে হেলথ কার্ড প্রদান করা হয়েছে। পর্যায়ক্রমে উপজেলার সকল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের হেলথ কার্ড প্রদান করা হবে।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আকুল উদ্দিন জানান, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের উৎসাহে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীদের রক্তের গ্র“প নির্ণয়সহ চোখ, নাক, কান, গলা ও স্বাস্থ্য পরীক্ষা শেষে হেলথ কার্ড প্রদান করা হচ্ছে। তিনি বলেন, এই হেলথ কার্ডধারী শিক্ষার্থীদেরকে সরকারি হাসপাতালে বিনামূল্যে স্বাস্থ্য সেবা প্রদানের পাশাপাশি চিকিৎসকদের ব্যক্তিগণ চেম্বারে চিকিৎসা নিতে গেলেও তাদেরকে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হবে।

হেলথ কার্ড প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল মান্নান খান বলেছেন, অসুস্থতাজনিত কারণে শিশুরা মাঝে মধ্যেই বিদ্যালয়ে অনুপস্থিত থাকে। তাই বিদ্যালয়ে শিশুদের শতভাগ উপস্থিতি নিশ্চিত করতেই তাদের স্বাস্থ্য পরীক্ষাসহ হেলথ কার্ড প্রদান করা হচ্ছে। তিনি বলেন, শিশুদের শরীর সুস্থ্য রাখতে হেলথ কার্ডধারী সকল শিক্ষার্থীকে নিয়মিত স্বাস্থ্য পরীক্ষা করানো হবে।#

পছন্দের আরো পোস্ট