সাদার্ন ইউনিভার্সিটির বিজয় দিবস উদযাপন

নানা আয়োজনে স্বাধীনতার ৪৬তম বিজয় দিবস উদযাপন করলো সাদার্ন ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ। ১৬ ডিসেম্বর সকালে জাতীয় পাতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে কর্মসূচি শুরু হয়। এর পর বিএনসিসি ক্যাডেটদের কুজকাওয়াজ পরিদর্শন করে অভিবাদন গ্রহণ করেন উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. নুরুল মোস্তফা, উদ্যোক্তা ও প্রতিষ্ঠাতা সরওয়ার জাহানসহ অন্যান্যরা। এছাড়াও আলোচনা সভা, রচনা প্রতিযোগিতা, সমবেত কন্ঠে জাতীয় সংগীত পরিবেশনসহ মুক্তযুদ্ধভিত্তিক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে দিবসটি পালন করে ইউনিভার্সিটি কর্তৃপক্ষ।

ইউনিভার্সিটি হল রুমে আয়োজিত আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. নুরুল মোস্তফা, উদ্যোক্তা ও প্রতিষ্ঠাতা সরওয়ার জাহান , প্রফেসর এ.জে.এম নুরুদ্দীন চৌধুরী, সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. শরীফুজ্জামান, ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের ডিন প্রফেসর ড. আব্দুল মোক্তাদীর, রেজিস্ট্রার ড. মনতাজুল ইসলাম চৌধুরী, ড. ইসরাত জাহান, প্রফেসর মহিউদ্দিন চৌধুরী, বিভিন্ন বিভাগের প্রধানগণ, শিক্ষকবৃন্দ এবং কর্মকর্তাসহ শিক্ষার্থীরা।

আলোচনা সভায় বক্তারা বীর শহীদদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বলেন, শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করছি সেই সব বীর মুক্তিযোদ্ধাদের যাদের প্রাণের বিনিময়ে আমরা স্বাধীন দেশ পেয়েছি। কৃতজ্ঞতা ও সালাম জানায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে যাঁর নেতৃত্বে মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণের জন্য উদ্বুদ্ধ হয়েছিলো দেশের মানুষ । দেশের প্রতিটি মানুষ স্বাধীনতার সুফল ভোগ করবে এমন একটি বাংলাদেশের স্বপ্ন দেখছে পুরো জাতি। সততা ও দেশ প্রেমের মাধ্যমে একটি সুন্দর বাংলাদেশ বিনির্মাণে সকলকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করে যেতে হবে। কাঙ্খিত উন্নয়নের মাধ্যমে স্বপ্নের বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠিত হলে তবেই শহীদদের আত্মত্যাগ সার্থক হবে।

পুরো অনুষ্ঠানের সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন জেনারেল এডুকেশন বিভাগের প্রধান ড. সৌরভ শাখাওয়াত।#

আরএইচ

পছন্দের আরো পোস্ট