নোবিপ্রবিতে ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ

dsc_0059নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (নোবিপ্রবি) ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের ১ম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণীর ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে। আজ সোমবার (১৪ নভেম্বর ২০১৬) বেলা ১২টায় উপাচার্যের দপ্তরে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে ভর্তি কমিটির চেয়ারম্যান উপাচার্য প্রফেসর ড. এম অহিদুজ্জামান সাংবাদিকদের সামনে এ ফলাফল প্রকাশ করেন।

এর আগে প্রশ্নপত্র প্রণয়ন, মুদ্রণ ও ফলাফল প্রকাশ কমিটির আহ্বায়ক উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. আবুল হোসেন উপাচার্যের নিকট আনুষ্ঠানিকভাবে ফলাফল হস্তান্তর করেন। এসময় অন্যান্যদের মধ্যে ডিন ড. মো. হুমায়ুন কবির, ভর্তি কমিটির সচিব ও বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার প্রফেসর মো. মমিনুল হক, পরীক্ষা পরিচালনা উপ কমিটির আহ্বায়ক ও শিক্ষক সমিতির সভাপতি মেহেদি মাহমুদুল হাসান, প্রভোস্ট ও আসন বিন্যাস উপকমিটির আহ্বায়ক ড. মো. ইউছুফ মিঞা, প্রক্টর মুহাম্মদ মুশফিকুর রহমান, অধ্যাপক ড. সৈয়্যদ আতিকুল ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, গত ১১ ও ১২ নভেম্বর ইঞ্জিনিয়ারিং, বিজ্ঞান এবং সামাজিক বিজ্ঞান ও বাণিজ্য এ তিন অনুষদের অধীন মোট ১৭টি বিভাগের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। বিস্তারিত ফলাফল বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে (www.nstu.edu.bd) পাওয়া যাচ্ছে। এবার মোট আবেদনের সংখ্যা ৪৫,৬৪৩; যার মধ্যে ভর্তি পরীক্ষায় উপস্থিতির হার ৬৯%। পাশের হার A গ্রুপে ৫৭.৬৯%, B গ্রুপে ৮৩.১২%, C গ্রুপে ৭৪.৬১% এবং D গ্রুপে ৪৮.১%। বিষয় নির্বাচন ও ভর্তি কার্যক্রম নিম্নোক্ত সময়সূচী অনুযায়ী অনুষ্ঠিত হবে।

লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের সাক্ষাৎকার ও ভর্তি:
৪ ডিসেম্বর ২০১৬ সকাল ৯ টা থেকে A গ্রুপেরমেধাতালিকার ১-৩০৫ পর্যন্ত।
৫ ডিসেম্বর ২০১৬ সকাল ৯ টা থেকে A গ্রুপের অপেক্ষমান তালিকার ৩০৬-৬০৫ পর্যন্ত (আসন খালি থাকা সাপেক্ষে)।
৬ ডিসেম্বর ২০১৬ সকাল ৯ টা থেকে B গ্রুপের মেধাতালিকার ১-৩০০ পর্যন্ত।
৭ ডিসেম্বর ২০১৬ সকাল ৯ টা থেকে B গ্রুপের অপেক্ষমান তালিকার ৩০১-৫৫০ পর্যন্ত (আসন খালি থাকা সাপেক্ষে)।
৮ ডিসেম্বর ২০১৬ সকাল ৯ টা থেকে C গ্রুপের মেধাতালিকার ১-১২০ পর্যন্ত এবং অপেক্ষমান তালিকার ১২১-২৪০ পর্যন্ত (আসন খালি থাকা সাপেক্ষে)।
৮ ডিসেম্বর ২০১৬ বিকাল ১২ টা থেকে Dগ্রুপের মেধাতালিকার ১-৬০ (বিজ্ঞান); ১-৬০ (বাণিজ্য); ১-২০ (মানবিক) এবং অপেক্ষমান তালিকার ৬১-১৫০ (বিজ্ঞান); ৬১-১২০ (বাণিজ্য); ২১-৪০ (মানবিক) পর্যন্ত (আসন খালি থাকা সাপেক্ষে)।

১৩ ডিসেম্বর ২০১৬ সকাল ৯ টা থেকে মুক্তিযোদ্ধা কোটায় A গ্রুপের মেধাতালিকার ১-১৭ এবং অপেক্ষমান তালিকার ১৮-৩২ (আসন খালি থাকা সাপেক্ষে); উপজাতি কোটায় মেধাতালিকার ১-৬; অপেক্ষমান তালিকার ৭-২০ (আসন খালি থাকা সাপেক্ষে); মুক্তিযোদ্ধা কোটায় B গ্রুপের মেধাতালিকার ১-১৮ এবং অপেক্ষমান তালিকার ১৯-৩৩ (আসন খালি থাকা সাপেক্ষে); উপজাতি কোটায় মেধাতালিকার ১-৭; অপেক্ষমান তালিকার ৮-২৫ (আসন খালি থাকা সাপেক্ষে), মুক্তিযোদ্ধা কোটায় C গ্রুপের মেধাতালিকার ১-৬ এবং অপেক্ষমান তালিকার ৭-১০ (আসন খালি থাকা সাপেক্ষে); উপজাতি কোটায় মেধাতালিকার ১-২; অপেক্ষমান তালিকার ৩-৭ (আসন খালি থাকা সাপেক্ষে); মুক্তিযোদ্ধা কোটায় D গ্রুপের মেধাতালিকার ১-৪ (বিজ্ঞান), ১-৩ (বানিজ্য), ১-২ (মানবিক); অপেক্ষমান তালিকার ৫-১২ (বিজ্ঞান), ৪-১৩ (বানিজ্য), ৩-৬ (মানবিক) আসন খালি থাকা সাপেক্ষে এবং উপজাতি কোটায় মেধাতালিকার ১ জন (বিজ্ঞান), ১ জন (বানিজ্য), ১ জন (মানবিক); অপেক্ষমান তালিকার ২-৫ (বিজ্ঞান), ২-৫ (বানিজ্য), ২-৫ (মানবিক) আসন খালি থাকা সাপেক্ষে।

মুক্তিযোদ্ধা কোটায় শিক্ষার্থী ভর্তির ক্ষেত্রে সরকারি পরিপত্র অনুযায়ী (মুক্তিযোদ্ধার সন্তান অগ্রাধিকার পাবে) ভর্তি করা হবে।

ভর্তির প্রয়োজনীয় কাগজপত্র :
১. এসএসসি ও এইচএসসি’র মূল মার্কশিট এবং প্রত্যেকটির একটি করে সত্যায়িত কপি অবশ্যই সঙ্গে আনতে হবে ২. টেলিটক বাংলাদেশ লিমিটেড থেকে ডাউনলোডকৃত প্রবেশপত্রের (ভর্তি পরীক্ষার সময় কক্ষ পরিদর্শক কর্তৃক স্বাক্ষরিত) কপি ৩. পাঁচ কপি পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ছবি ৪. নাগরিকত্ব সার্টিফিকেট/জন্ম নিবন্ধন/পাসপোর্ট এর সত্যায়িত কপি ৫. মুক্তিযোদ্ধা কোটায় ভর্তিচ্ছু প্রার্থীদের পিতা-মাতার অনুকূলে সরকার কর্তৃক ইস্যুকৃত মুক্তিযোদ্ধা সার্টিফিকেট এবং প্রয়োজনে দাদা-দাদী, নানা-নানীর সম্পর্কের সার্টিফিকেটের মূল কপি এবং সত্যায়িত কপি ৬. উপজাতি প্রার্থীদের ক্ষেত্রে উপজাতি ভিত্তিক প্রত্যয়ন পত্রের মূল কপি ও সত্যায়িত কপি এবং ৭. প্রথম টার্মের ক্রেডিট আওয়ার ফিসহ অন্যান্য ফি-চার্জ বাবদ সকল গ্রুপের জন্য আনুমানিক ২৩,০০০.০০ (তেইশ হাজার) টাকা ভর্তি হওয়ার জন্য সঙ্গে আনতে হবে। উপরোল্লিখিত কাগজপত্র ব্যতিত কোন ছাত্রছাত্রীকে ভর্তির অনুমতি দেয়া হবে না।

পছন্দের আরো পোস্ট