৮ম স্টামফোর্ড ফ্রেশার্স বিতর্কের সমাপনী অনুষ্টিত

received_810579659045064“তারুণ্য মোদের শক্তি, যুক্তিতে মিলবে মুক্তি” এ স্লোগানকে সামনে রেখে গত ১২ইমে শুরু হওয়া “৮ম স্টামফোর্ড ফ্রেশার্স ওয়ার্কশপ এ্যান্ড ডিবেট কমিপিটশন -২০১৬” এর পুরষ্কার বিতরণ আজ হয়েছে স্টামফোর্ড ডিবেট ফোরাম ক্লাব কক্ষে।

Post MIddle

স্টামফোর্ড ডিবেট ফোরামের আয়োজনটি মূলত নবীন ব্যাচগুলোর মধ্যে বিতার্কিক অনুসন্ধানে বছরের নিয়মিত আয়োজন,স্টামফোর্ড ডিবেট ফোরামের এবারের আয়োজনটি ছিলো এপর্যন্ত সর্ববৃহৎ ফ্রেশার্স আয়োজন।

ক্লাবরুমে পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্টানে ক্লাবের ভাইস প্রেসিডেন্ট মাহমুদুল হাসানের উপস্থাপনায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ড.এম ফিরোজ আহমেদ। এসময় উপস্থিত ছিলেন ক্লাবের চিফ কো-অর্ডিনেটর মো.আল-মামুন, ক্লাবের প্রাক্তন জিএস ওমর খৈয়াম মিশু, নাঈম ফরহাদ পুলক এবং ক্লাবের সাবেক বিতার্কিক ও বর্তমানে দেশের অন্যতম জনপ্রিয় নিউজ প্রেজেন্টার রাইসুল এইচ চৌধুরী, সভাপতিত্ব করেন ক্লাব প্রেসিডেন্ট মিরাজুল ইসলাম।

আয়োজনে মোট ৩৮টি দল বিভিন্ন ডিপার্টমেন্ট থেকে অংশ নেন, যেখানে ইংরেজী বিতর্কে চ্যাম্পিয়ন হয় ইংরেজি বিভাগের Sincere আর রানার্সআপ হয় Aqua Rezia তারা প্রতিনিধিত্ব করেন সিএসই ডিপার্টমেন্টকে।বাংলা বির্তকে চ্যাম্পিয়ন হয় সিএসই’র “Cse Snipers”, রানার্সআপ হয় “Gladiators of 54” তারা ইংরেজি বিভাগের প্রতিনিধিত্ব করেন।

বাংলা বিতর্কের ফাইনাল সেরা বক্তা নির্বাচিত হন সিএসই স্নাইপার এর সজীব আর ইংরেজি বিতর্কের ফাইনালে নুসরাত জাহান রিতু।এছাড়া বাংলা ও ইংরেজির সেরা দশ বিতার্কিককে পুরষ্কৃত করা হয়।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড.এম ফিরোজ আহমেদ বলেন, “বির্তক হচ্ছে সহশিক্ষা কার্যক্রমগুলোর মধ্যে সবচেয়ে গ্রহণযোগ্য মাধ্যম।স্টামফোর্ড ডিবেট ফোরাম অনেক আগে থেকেই বিশ্ববিদ্যালয়ের সুনাম দেশে এবং বাইরে ছড়িয়ে দিচ্ছে।” তিনি আরো বলেন,নবীন বিতার্কিকদের মাধ্যমে ক্লাব আরো ভালো করবে।

received_810577362378627

পছন্দের আরো পোস্ট