ইবির নতুন ভিসি ও ট্রেজারারের যাত্রা শুরু

1 (1)মুক্ত বাংলায় পুস্পার্ঘ্য অপর্ণের মধ্যদিয়ে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে নতুন নিয়োগ প্রাপ্ত উপাচার্য প্রফেসর ড. মোঃ হারুন-উর-রশিদ আসকারী ও ট্রেজারার প্রফেসর ড. মোঃ সেলিম তোহা যাত্রা শুরু করেছেন। আজ সোমবার সকাল সাড়ে ১০টায় তাঁরা মুক্ত বাংলায় পুস্পার্ঘ্য অর্পণের মধ্যদিয়ে এ যাত্রা শুরু করেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ শাহিনুর রহমান, ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার এস এম আব্দুল লতিফ, বিভিন্ন অনুষদীয় ডিন, বিভাগীয় প্রধান, প্রক্টর প্রফেসর ড. মোঃ মাহবুবর রহমান, ছাত্র-উপদেষ্টা প্রফেসর ড. মোঃ আনোয়ার হোসেন সহ বিভিন্ন পর্যায়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারী ও শিক্ষার্থীবৃন্দ।

পুস্পার্ঘ্য নিবেদন শেষে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ ১৫ আগস্টে নিহত সকল শহীদ এবং মহান মুক্তিযুদ্ধে আত্মদানকারী সকল শহীদের আত্মার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে ১ মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। সেখানে সংক্ষিপ্ত বক্তৃতায় উপাচার্য প্রফেসর ড. মোঃ হারুন-উর-রশিদ আসকারী বলেন, প্রথমে আমি শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করি হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে, স্মরণ করি জাতীয় ৪ নেতাসহ মহান মুক্তিযুদ্ধে আত্মদানকারী ৩০ লাখ শহীদ ও সম্ভ্রম হারানো ২ লাখ মা-বোনকে।

তিনি বলেন, আমি শ্রদ্ধা জানাই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনাকে। যিনি সকল প্রকার রক্তচক্ষু উপেক্ষা করে বাংলার মানুষের ভাত ও ভোটের অধিকার নিশ্চিত করেছেন। যাঁর যোগ্য নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ মধ্য আয়ের দেশে পরিণত হতে চলেছে। ভাইস চ্যান্সেলর অঙ্গীকার করে বলেন, ৭১ সালে যে আদর্শ নিয়ে মহান মুক্তিযুদ্ধ সংঘটিত হয়েছিল, সেই আদর্শ এই বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিটি স্তরে এবং প্রতিটি অংশে প্রতিষ্ঠিত হবে। মহান মুক্তিযুদ্ধের আদর্শই হবে আমাদের আলোকবর্তিকা।এজন্য প্রত্যেককে স্ব-স্ব অবস্থান থেকে কাজ করে যেতে হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের কাঙ্খিত উন্নয়নে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন ড. রাশিদ আসকারী।

বক্তব্য শেষে বিশ্ববিদ্যালয় এবং দেশ ও জাতির সার্বিক মঙ্গল কামনায় দোয়া ও মোনাজাত করা হয়। এরপর উপাচার্য ও ট্রেজারার তাঁদের কার্যালয়ে উপস্থিত হয়ে নিজ নিজ আসন অলংকৃত করেন। বেলা ১১টায় প্রশাসন ভবনের সভাকক্ষে উপাচার্য প্রফেসর ড. মোঃ হারুন-উর-রশিদ আসকারী ও ট্রেজারার প্রফেসর ড. মোঃ সেলিম তোহা বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল শিক্ষক সংগঠন, বিভিন্ন অনুষদীয় ডিন, হল প্রভোস্ট, বিভাগীয় সভাপতি, সকল অফিস প্রধান, শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারী সমিতি, বাংলাদেশ ছাত্রলীগসহ বিভিন্ন ছাত্র সংগঠন এবং ইবি প্রেস ক্লাব ও সাংবাদিক সমিতির নেতৃবৃন্দের সাথে শুভেচ্ছা ও মতবিনিময় করেন।

এসময় প্রফেসর ড. মোঃ হারুন-উর-রশিদ আসকারী বলেন, সংক্ষিপ্ত উন্নয়ন পরিকল্পনার অংশ হিসেবে আগামী ৬ মাসের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল বিভাগের সেসন জট নিরসন করতে চাই। এজন্য সকল পর্যায়ের শিক্ষকদের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন তিনি।

2 (1)

তিনি বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় যে ইমেজ সংকটে ভুগছে তা নিরসন এবং বিশ্ববিদ্যালয়কে জঙ্গি মুক্ত রাখতে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। তিনি উপস্থিতদের উদ্দেশ্যে বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় আপনাকে কি দিয়েছে, সে প্রশ্ন বড় নয় – আপনি বিশ্ববিদ্যালয়কে কি দিয়েছেন তার উত্তর খুঁজতে হবে।

তিনি বলেন, সহকর্মী প্রো-ভিসি, ট্রেজারারসহ সকলকে সাথে নিয়ে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়কে বিশ্বমানের করে গড়ে তুলতে চাই। এ বিষয়ে তিনি সকলের সহযোগিতা প্রত্যাশা করেন। মতবিনিময় সভায় প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ শাহিনুর রহমান নব নিযুক্ত ভাইস চ্যান্সেলর ও ট্রেজারারকে অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, পেশাগত জায়গায় আমাদের সকলকে সক্রিয়ভাবে কাজ করে বিশ্ববিদ্যালয়কে উচ্চস্তরের ঐতিহ্যিক প্রতিষ্ঠানে উন্নীত করতে হবে।

তিনি বলেন, আমি মনে করি বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বার্থে আমাদের মধ্যে কোন প্রকার মতানৈক্য থাকবে না। নব নিযুক্ত ট্রেজারার প্রফেসর ড. মোঃ সেলিম তোহা বলেন, আমরা পিছনে ফিরে তাকাতে চাইনা। আমরা এক ও ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে চাই। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইমেজ পূণঃরুদ্ধারে সকলের আন্তরিক সহযোগিতা কামনা করেন।

মতবিনিময় সভায় নব নিযুক্ত উপাচার্য  এবং ট্রেজারারকে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানিয়ে বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ কামাল উদ্দিন, শিক্ষক সমিতির সভাপতি প্রফেসর ড. মোঃ এমতাজ হোসেন, ধর্মতত্ব অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. এবিএম ফারুক, মানবিক ও সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. মোঃ রুহুল আমিন, প্রফেসর ড. আবুল কালাম পাটওয়ারী, প্রফেসর ড. আনম রেজাউল করিম, প্রফেসর ড. রুহুল কে এম সালেহ্, প্রফেসর ড. আলীনুর রহমান, প্রফেসর ড. মোঃ জাকারিয়া রহমান, প্রফেসর ড. মোঃ মাহবুবুর রহমান, প্রফেসর ড. মোঃ মাহবুবুল আরফিন, প্রফেসর ড. আবম ছিদ্দিকুর রহমান আশ্রাফী ও কর্মকর্তা সমিতির সভাপতি শামছুল ইসলাম জোহা। সভা পরিচালনা করেন ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার এস এম আব্দুল লতিফ।

3 (1)

পছন্দের আরো পোস্ট