চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ

শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন, বিপথগামী কিছু সেনাসদস্য বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেছে বলে যে প্রচারণা তা একেবারেই ঠিক নয়। তিনি বলেন, মহান মুক্তিযুদ্ধের পরাজিত শক্তি কখনো চায়নি বাংলাদেশ একটি স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে প্রতিষ্ঠা লাভ করুক। দেশের স্বাধীনতাকে নসাৎ করার জন্যই সেই পরাজিত শক্তি বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে।

মন্ত্রী বুধবার জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে ঢাকার সেগুনবাগিচায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে শিক্ষা মন্ত্রণালয় আয়োজিত আলোচনাসভায় একথা বলেন।

শিক্ষাসচিব মো. সোহরাব হোসাইনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক প্রফেসর ড. এস এম ওয়াহিদুজ্জামান, মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব এ এস মাহমুদ এবং আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক প্রফেসর ড. জিনাত ইমতিয়াজ বক্তব্য রাখেন।

মন্ত্রী বলেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির পিতাকে হত্যার পর পরাজিত পাকিস্তানি বাহিনীর এদেশীয় দোসররা রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা দখল করে এবং দীর্ঘ ২১ বছর ধরে এদেশের স্বাধীনতার ইতিহাসকে পেছনের দিকে ঘুরিয়ে দেয়ার ষড়যন্ত্র চালায়। তিনি বলেন, এ অপশক্তিই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের চলমান অগ্রগতি ব্যাহত করতে শান্তির ধর্ম ইসলামের ভুল ব্যাখ্যা দিয়ে তরুণদের বিভ্রান্ত ও বিপথগামী করে জঙ্গি তৎপরতায় ঠেলে দিচ্ছে। এ অপশক্তিকে প্রতিহত করতে ছাত্রশিক্ষকসহ মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উজ্জীবিত দেশপ্রেমিক জনগণের প্রতি আহ্বান জানান শিক্ষামন্ত্রী।
অনুষ্ঠানে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আয়োজিত রচনা ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার বিজয়ী শিক্ষার্থীদের পুরস্কৃত করেন তিনি। মন্ত্রী জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে আয়োজিত আলোকচিত্র প্রদর্শনীরও উদ্বোধন করেন।

এর আগে ঢাকা কলেজে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে ‘বঙ্গবন্ধুর জীবন ও কর্ম’ শীর্ষক আলোচনাসভায় বক্তৃতা করেন।

 

পছন্দের আরো পোস্ট