বেরোবিতে ভাইস চ্যান্সেলর’স এ্যাওয়ার্ড প্রদান

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর ররহমানের জীবন ও কর্মের বিভিন্ন বিষয়ে প্রবন্ধ/রচনা প্রতিযোগিতাসহ চার ক্যাটাগরিতে ভাইস-চ্যান্সেলর’স এ্যাওয়ার্ড প্রদান করা হয়েছে। জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় এ পুরুস্কার প্রদান করা হয়।

এ প্রতিযোগিতায় শিক্ষকদের মাঝে শ্রেষ্ঠ হয়েছেন বাংলা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. আবু ছালেহ মোহাম্মদ ওয়াদুদুর রহমান, কর্মকর্তাদের মাঝে শ্রেষ্ঠ হয়েছেন অর্থ ও হিসাব দপ্তরের সহকারী পরিচালক হারুন তাজিফ জয়, শিক্ষার্থীদের মাঝে শ্রেষ্ঠ হয়েছেন বাংলা বিভাগের ছাত্রী যীন্নাতুন্নেছা এবং কর্মচারীদের মাঝে শ্রেষ্ঠ হয়েছেন সহকারী স্টোর কিপার শিরিনা আক্তার।

গত বছর বঙ্গবন্ধুর ৪০তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও শোক দিবসের আলোচনা সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. একেএম নূর-উন-নবী চলতি বছর থেকে বঙ্গবন্ধুর বিষয়ে গবেষণাসহ অন্যান্য কাজে বিশেষ অবদান রাখার জন্য ‘বঙ্গবন্ধু এ্যাওয়ার্ড’ চালু করার ঘোষণা দিলেও তা বাস্তবায়ন না করে উল্টো “ভাইস চ্যান্সেলর’স” এ্যাওয়ার্ড চালু করলেন। এতে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মাঝে বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে।

এ বিষয়ে শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক তাবিউর রহমান প্রধান বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর নামে এ্যাওয়ার্ড ঘোষণা করার পর সেটি বাস্তাবয়ন না করায় প্রতারণা করা হয়েছে।’

বিশ্ববিদ্যালয়ের গণিত বিভাগের শিক্ষক ও বঙ্গবন্ধু পরিষদের সদস্য সচিব মশিউর রহমান তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, এটি শুধু জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সাথে নয় পুরো জাতির সাথে তামাশা করা হয়েছে।’ এব্যাপারে উপাচার্যের সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।#

পছন্দের আরো পোস্ট