ফয়সাল হাবিব সানি’র কবিতা দু’টি কবিতা

১. মহান নেতা

মহাকালের বুকে পদচিহ্ন রেখে হেঁটে চলেছো তুমি অাজও নিরবধি……
হে, মহান নেতা!
তোমার কাছ থেকে শিখেছি কীভাবে যুদ্ধ করতে হয়;
শিখিয়েছো দেশপ্রেমের মহান মন্ত্রণা, শুনিয়েছো নিষ্পেষিত-নিপীড়িত জুলুমসহা অত্যাচারিতদের বন্দনা।
হিংস্র শূয়োরের ছোবল থেকে মুক্ত করতে শিখিয়েছো স্বাধীনতা;
দানবের করাল গ্রাস থেকে, হায়েনার বাকরুদ্ধ শৃঙ্খল থেকে উচ্চারণ করতে শিখিয়েছো `মা’।

 

হে, মহান নেতা!
অাজও তোমার স্বপ্নেরা উড়ে বেড়ায় বাংলার অাকাশে-বাতাসে, অাজও তোমার দরাজ কণ্ঠ কাঁপিয়ে যায় প্রতিটি বাঙালির রক্তকণা!!
তুমি শুধু বাংলায় নয়— সারা বিশ্বের দরবারে এক প্রবাদ পুরুষ, মহান নেতা;
তুমি অামাদের অহংকার, অামাদের প্রাপ্ত স্বাধীনতা।

 

 

২. বঙ্গবন্ধু তুমি অাছো

বঙ্গবন্ধু তুমি অাছো এই বাংলায় সবুজ-শ্যামলিমায় মিশে
অাছো পলাশের পাশে লাল লাল রক্তরং ভালোবেসে।
অাছো তুমি রেসকোর্স ময়দানে, অাছো তুমি সর্বস্তরে;
অাজও তুমি বসে অাছো প্রত্যেক বাঙালির ঘরে ঘরে।
অাছো অবিমিশ্র বাংলার জারি, সারি, ভাঁটিয়ালির সুরে……
তোমার অগ্নিকণ্ঠ অাজও অগ্নি হানে বাংলার বক্ষ জুড়ে।
তোমায় কাছে ডাকে অাজও বাংলার পথ-ঘাট-মাঠ
ইতিহাসের কাছে তুমি চিরঞ্জীব; এক বিশ্ববীর সম্রাট।
বাংলার অানাচে-কানাচে ছড়িয়ে তুমি, স্বাধীনতার দীক্ষাগুরু;
বাংলাদেশের স্বপ্ন দেখা প্রথম তুমিই করেছিলে শুরু।
তুমি শুরু, তুমি অনিঃশেষ, সাহসী মহান বীর;
নজরুলের বিদ্রোহী’র মতো `উন্নত মম শির’।
অাছো তুমি বঙ্গবন্ধু, হাজারও কবি’র কাব্যে;
অাছো বাদ্যে, অাছো অন্তে, অাছো তুমি অাদ্যে।
তুমি মরোনি, তুমি ছিলে, অাজও তুমি অাছো
তুমি অাজও দূর থেকে বাংলাকে ভালোবাসো।
অাজও ভালোবাসো তুমি বাঙালিকে, ভালোবাসো মাতৃভাষা
অাজও তোমার গান গায় অাউল-বাউল-চাষা।
তুমি বাংলার অস্তিত্ব ঘিরে গাঁথা চিরকাল; প্রতিবাদের ক্ষিপ্ত তান……
তুমি জাতিশ্রেষ্ঠ, মহান সৈনিক মুজিবুর রহমান।

 

 

ফয়সাল হাবিব সানি
তরুণ কবি ও সাহিত্যিক, বাংলাদেশ।
অমর একুশে গ্রন্থমেলা-২০১৬'- তে প্রকাশিতদাবানল’ কাব্যগ্রন্থের রচয়িতা।
অনার্স প্রথম বর্ষ (বাংলা বিভাগ), বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, গোপালগঞ্জ, বাংলাদেশ।

পছন্দের আরো পোস্ট