গ্রিন ইউনিভার্সিটিতে জাতীয় শোক দিবস পালন

গ্রিণ ইউনিভার্সিটিতে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে সোমবার (১৫ আগস্ট) এক আলোচনা সভা, বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতীতে পুস্পস্তবক অর্পণ ও পুরুস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সকাল ১০টায় ধানমন্ডীর ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতীতে পুস্পস্তবক অর্পণের মধ্য দিয়ে শোক দিবসের কার্যক্রম শুরু হয়। আলোচনা সভা মাননীয় ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ গোলাম সামদানী ফকির-এর সভাপতিত্বে বেলা ১১:০০ ঘটিকায় অনুষ্ঠিত হয়।

আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. মোঃ আজিজুর রহমান এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গ্রিন বিজনেস স্কুলের এডভাইজর, প্রফেসর এমএম খান, ট্রেজারার ও ডাইরেক্টর, স্টুডেন্ট এ্যাফেয়ার্স মোঃ শহীদ উল্লাহ, রেজিস্ট্রার লেঃ জেনারেল মোঃ মইনুল ইসলাম (এলপিআর), গ্রিন বিজনেস স্কুলের ডীন, অধ্যাপক ড. গোলাম আহমেদ ফারুকী, বিজ্ঞান ও প্রকৌশল অনুষদের ডীন প্রফেসর ড. মোঃ ফাইজুর রহমান।

আলোচনা সভায় বক্তারা তাদের বক্তব্যে উল্লেখ করেন, আজ আমাদের লজ্জার দিন, শোকের দিন। ১৯৫২ এর ভাষা আন্দোলন, ১৯৬৬ এর ৬-দফা আন্দোলন, ১৯৬৮ এর আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলা, ১৯৬৯ এর গণঅভ্যুত্থান এর চুড়ান্ত রুপ হচ্ছে ১৯৭১ এর মুক্তিযুদ্ধ ও এ যুদ্ধের নেতৃত্বে ছিলেন বঙ্গবন্ধু। বক্তারা শিক্ষার্থীদের বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে সামনে রেখে এদেশকে সোনার বাংলায় রুপান্তরিত করার আহবান জানান।

এছাড়াও সভায় বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনীর বিভিন্ন দিকের উপর আলোকপাত করা হয় এবং উপাচার্য মহোদয়ের একান্ত ইচ্ছায় বিশ্ববিদ্যালয়ের রিডিং সোসাইটি এ আত্মজীবনী নিয়ে বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থীদের মধ্যে কুইজ প্রতিযোগিতার আয়োজন করেন। এ কুইজ প্রতিযোগিতায় বিজয়ী তিনজন শিক্ষার্থীর হাতে পুরুস্কার ও সনদপত্র তুলে দেন মাননীয় উপাচার্য ও প্রধান অতিথি।

মাননীয় উপাচার্য অনুষ্ঠানের শেষ পর্যায়ে মোনাজাত পরিচালনা করেন। অনুষ্ঠানে বিভিন্ন অনুষদের বিপুল সংখ্যক শিক্ষক-শিক্ষিকা, কর্মকর্তা-কর্মচারী ও ছাত্র-ছাত্রীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।##

পছন্দের আরো পোস্ট