৪ বিষয়ের দক্ষতা নিরাপদ করবে ক্যারিয়ার

Visit California headquarters in Sacramento, California.

১. সৃষ্টিশীলতা ও কর্মতৎপরতা

অভিনয়শিল্পী, চিত্রকর, ক্রীড়াবিদ বা সংগীতজ্ঞের মতো কিছু খাত বেদখলে নিতে পারবে না প্রযুক্তি। সৃষ্টিশীলতা দেখানো কম্পিউটারের পক্ষে সম্ভব নয়। মানুষের সৃষ্টি কোনো চিত্রকলা বা সৃষ্টিশীল বিষয় অনুসরণ করে কম্পিউটার কিছু করতে পারে। রোবটের ফুটবল খেলা দেখতে কোনো মানুষই আগ্রহী হবে না। কারণ মানুষের খেলায় যে উত্তেজনা ও মানবিক আবেদন ছড়িয়ে রয়েছে তা যন্ত্রের পক্ষে করা অসম্ভব বিষয়।

আবার শিল্পী বা খেলোয়াড় না হলেও আপনার রয়েছে জ্ঞান। আপনি আইডিয়া সৃষ্টি করতে পারেন। আপনি লেখক, গ্রাফিক ডিজাইনার, বিজ্ঞানী, পুরাতত্ত্বববিদ, প্রশিক্ষক, ফটোগ্রাফার, স্থপতি, আইনজীবী, চিকিৎসক হতে পারেন। এসব ক্ষেত্রে আপনার সৃষ্টিশীল দক্ষতার প্রদর্শন কোনো রোবট করতে পারবে না।

২. সহমর্মিতা
কোনো যন্ত্রের পক্ষে এই গুণটি অর্জন করা সম্ভব নয়। অনেক মানুষের পারস্পরিক ক্রিয়া-প্রতিক্রিয়া রয়েছে যে কাজে, সেখানে সহমর্মিতার মতো মানবিক গুণ অতুলনীয়। অবশ্য আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্সের (এআই) কল্যাণে কম্পিউটার কিছুটা সহজ-সরল ক্রিয়া-প্রতিক্রিয়া প্রদর্শন করতে পারছে। কিন্তু সমব্যথী হওয়া বা সহমর্মিতা প্রকাশ করা অসম্ভব বিষয়। এআই খুব বেশি হলে নির্দিষ্ট কিছু প্রশ্নের উত্তর দিতে পারে বা ফোন কল গ্রহণ করতে পারে। মানুষের সঙ্গে সূক্ষ্ম মানবিক বিষয়ের লেনদেনে জড়িত হতে হয় থেরাপিস্টদের। এই পেশার মানুষের কাজ যন্ত্র দিয়ে কি হয়?

কাজেই কাউন্সেলর, নার্স, ডেন্টিস্ট, ফিটনেস ট্রেইনার, পুলিশ অফিসারের মতো পদে যান্ত্রিক দক্ষতায় কখনো কার্যসিদ্ধি হবে না।

৩. বিশেষ ক্ষেত্রে দক্ষতা
স্বয়ংক্রিয় ব্যবস্থা মূলত ব্যাপক কোনো কর্মকাণ্ড পরিচালনার জন্য প্রয়োজন হয়। কিন্তু ছোটখাটো বা বিশেষ ক্ষেত্রে জ্ঞান ধারণের ক্ষেত্রে মানুষ ছাড়া গতি নেই। যেমন একজন স্থানীয় ট্যুর গাইড তাঁর অঞ্চলের আনাচে-কানাচে চেনেন। তাঁর কাজ কোনো রোবটকে দিয়ে সম্ভব নয়। এমন অনেক কাজই রয়েছে যা মানুষের হাত ছাড়া সম্ভব নয়। বন বা কৃষি গবেষণার অনেক কাজই যন্ত্র করতে পারবে না।

৪. প্রযুক্তি জ্ঞান
স্বয়ংক্রিয় ব্যবস্থার গোটাটাই প্রযুক্তির উৎকর্ষ। আর প্রযুক্তিকে এগিয়ে নিতে মানুষ ছাড়া গতি নেই। একটি এআই সিস্টেম কোনো লাইব্রেরির দায়িত্ব নিলেও সে ঠিকমতো কাজ করছে কি না এর তদারকিতে মানুষের বিকল্প নেই।

হতে পারে কিছু খাতে যন্ত্র তার সামর্থ্য দেখিয়েছে। কিন্তু এসব হাতে গোনা কয়েকটি অংশ যন্ত্রের সুবিধা ভোগ করবে। মানুষের বিকল্প হতে পারবে না কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা। কারণ মানুষ ছাড়া এআই অচল। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কর্মপরিকল্পনা ও কর্মপরিবেশের কারণেও যন্ত্র বা রোবট ব্যবহারের সুযোগ নেই।

একটা সিস্টেমের দেখভালের কাজ করতে পারে এআই। কোনো যন্ত্র ইনস্টল করতে কাজ করতে পারে আরেকটি যন্ত্র বা রোবট। কিন্তু সৃষ্টি, উদ্ভাবন আর নকশা তৈরির কাজ মানুষকেই করতে হবে। তাই মোটামুটি সব চাকরিই প্রযুক্তির হাত থেকে নিরাপদ রয়েছে।

ফোর্বস অবলম্বনে 

পছন্দের আরো পোস্ট