সড়ক দূর্ঘটনায় বাগবাড়ী হাইস্কুল শিক্ষকের মৃত্যু

গতকাল বুধবার সকাল আনুমানিক সকাল ৮টা ৪৫ মিনিটে বগুড়া শাজাহানপুর উপজেলার খোট্টপাড়া ইউনিয়নের বলদিপালান দুলুর ইটভাটার পশ্চিমে বগুড়া-বাগবাড়ী সড়কে বগুড়া শহরগামী বালুভর্তি ট্রাক ও বাগবাড়ীগামী মটরসাইকেল মূখোমূখি সংঘর্ষে চালক রংপুর জেলা মিঠাপুকুর উপজেলার কাশেমপুর সরকারপাড়ার তোজাম্মেল হকের জেষ্ঠ্য পুত্র গাবতলী উপজেলার বাগবাড়ী কে,এম উচ্চবিদ্যালয়ের সহকারীশিক্ষক (ইংরেজি) শহিদুল ইসলাম(৩৩) মৃত্যুবরণ করেছেন (ইন্নালিল্লাহি —- রাজিউন)।

তাঁর অকাল মৃত্যুতে এলাকায় সর্বস্তরের জনসাধারণের মাঝে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। মরহুমের প্রথম জানাযার নামাজ কর্মস্থল বাগবাড়ী কে, এম উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে দুপুর সাড়ে ১২টায় অনুষ্ঠিত হয়। সে সময় গাবতলী মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার টিএম আব্দুল হামিদ, একাডেমিক সুপার ভাইজার মোশাররফ হোসেন, গাবতলী উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সেক্রেটারী নেপালতলী উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কাজী আনোয়ারুল ইসলাম, গাবতলী আলিম মাদরাসার অধ্যক্ষ রেজাউল বারী, অধ্যক্ষ ফজলার রহমান, উপাধ্যক্ষ মাওঃ রফিকুল ইসলাম, প্রধান শিক্ষক হাফিজার রহমান, সুপার আবু ছালেক, প্রধান শিক্ষক রেজাউল করিম, আব্বাস আলী প্রাং, আলমগীর হোসেন, রোকন তালুকদার, অত্র প্রতিষ্ঠানের কমিটি জহুরুল হক পটো, এমদাদুল হক ডালু, আনোয়ার হোসেন, নুর আলম, প্রধান শিক্ষক আমজাদ হোসেন, রাকিবুল ইসলাম, শফিকুল ইসলাম, মোতাহার হোসেন প্রমূখ সহ বাগবাড়ী এলাকার প্রতিটি প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক, কর্মচারী,ছাত্র সর্বস্তরের জন সাধারণ ও মরহুমের পরিবারের সদস্য এবং আত্মীয় স্বজন জানাযায় উপস্থিত ছিলেন। সহকারী শিক্ষক মাওলানা মামুনুর রশিদ তাঁর ১ম জানাযায় ইমামতি করেন। জানাযা শেষে মরহুমকে গ্রামের বাড়ীর রংপুরের মিঠাপুকুরে নিয়ে যাওয়া হয় ২য় জানাযা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। মৃত্যুকালে বাবা,মা, স্ত্রী,৩ ভাই,৪ বোন সহ অনেক আত্মীয় স্বজন ওগুণগ্রাহী রেখে যান।

পছন্দের আরো পোস্ট