খুবির ইসিই ডিসিপ্লিন প্রধানের দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি

khulna-universityখুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইলেক্ট্রনিক্স এন্ড কমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং ডিসিপ্লিনের প্রধানের দায়িত্ব থেকে প্রফেসর সেহরিশ খানকে অব্যাহতি প্রদান করা হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞান প্রকৌশল ও প্রযুক্তিবিদ্যা স্কুলের ডিন প্রফেসর ড. মোঃ ইসমত কাদিরকে উক্ত ডিসিপ্লিন প্রধানের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

 

াবুধবার বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার কার্যালয় থেকে এ সংক্রান্ত এক পত্র জারি করা হয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট একটি সূত্র বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। পত্রে বলা হয় ডিসিপ্লিন প্রধান প্রফেসর সেহরীশ খান এর বিরুদ্ধে উত্থাপিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে গঠিত তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় গত ২৪ জুলাই অনুষ্ঠিত সিন্ডিকেটের ১৮৬তম সভার সিদ্ধান্ত নং-৬ মোতাবেক ২৪ জুলাই খুবি/প্রশা-১৩২/৯৭-৮৭০ নং স্মারকে ডিসিপ্লিন প্রধানকে কারণ দর্শানোর নোটিশ প্রদান করা হয়। ডিসিপ্লিন প্রধান ২৭ জুলাই প্রেরিত কারণ দর্শানো নোটিশের জবাব কর্তৃপক্ষের নিকট সন্তোষজনক হয়নি। ডিসিপ্লিন প্রধান দায়িত্ব গ্রহনের পর শিক্ষকদের অর্ন্তদ্বন্দ চরম আকার ধারণ করার ফলে ডিসিপ্লিনের একাডেমিক কার্যক্রম সম্পূর্ণরূপে অচল হয়ে পড়ে এবং শিক্ষার্থীরা দীর্ঘমেয়াদী সেসশন জটের কবলে পড়ায় আন্দোলনের পথ বেছে নেয়। এতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাবমূর্তি দারুনভাবে ক্ষুন্ন হয়। এ পরিপ্রেক্ষিতে ডিসিপ্লিন প্রধানকে ইসিই ডিসিপ্লিনের প্রধানের দায়িত্ব থেকে সাময়িকভাবে অব্যাহতি প্রদান করা হয়।

 

Post MIddle

ডিসিপ্লিনের শিক্ষকদের মধ্যে অর্ন্তদ্বন্দের অবসান ও শিক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশ ফিরিয়ে আনার লক্ষ্যে বিজ্ঞান প্রকৌশল ও প্রযুক্তিবিদ্যা স্কুলের ডিন প্রফেসর ড. মোঃ ইসমত কাদিরকে অদ্য ২৭-৭-২০১৬ খ্রি. তারিখ থেকে ইলেকট্রনিক্স এন্ড কমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং ডিসিপ্লিনের প্রধানের দায়িত্ব সাময়িকভাবে প্রদান করা হয়। এর ফলে বেশকিছুদিন ধরে ডিসিপ্লিনের যে সমস্যার সৃষ্টি হয়েছিলো তার অবসান হবে বলে আশা করা যাচ্ছে।#

 

আরএইচ

পছন্দের আরো পোস্ট