রবীন্দ্র ও বঙ্গবন্ধু ডিজিটাল বিশ্ববিদ্যালয় বিল পাশ

Parliamentদেশে প্রযুক্তি বাণিজ্য উদ্যোক্তা গড়ে তোলার লক্ষ্যে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল বিশ্ববিদ্যালয় এবং বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের সৃষ্টিকে এ দেশের মানুষের স্মৃতিতে চির অম্লান রাখার লক্ষ্যে তার স্মৃতিবিজড়িত সিরাজগঞ্জ জেলার শাহজাদপুরে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার বিধান করে সংসদে দুটি বিল পাস হয়েছে। রোববার (১৭ জুলাই) রাতে জাতীয় সংসদ অধিবেশনে পৃথক দুটি বিল পাস হয়। শিক্ষামন্ত্রী নূরুল ইসলাম নাহিদ বিল দুটি পাসের প্রস্তাব উত্থাপন করলে তা কণ্ঠভোটে পাস হয়।

 

ডেপুটি স্পিকার অ্যাডভোকেট মো. ফজলে রাব্বী মিয়ার সভাপতিত্বে শুরু হওয়া সংসদ অধিবেশনে শিক্ষামন্ত্রী প্রথমে ‘রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশ আইন-২০১৬’ ও পরে ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল ইউনিভার্সিটি, বাংলাদেশ আইন-২০১৬’ পাসের প্রস্তাব উত্থাপন করেন। বিল দুটি পাসের আগে জনমত যাচাই ও বাছাই কমিটিতে পাঠানোর প্রস্তাব দেন বিরোধী দল জাতীয় পার্টি ও স্বতন্ত্র সংসদ সদস্যরা। কিন্তু তাদের প্রস্তাব কণ্ঠভোটে নাকচ হয়ে যায়। পরে বিল দুটি সর্বসম্মতিতে পাস হয়।

 

গত ৮ ফেব্রুয়ারি জাতীয় সংসদে বিল দুটি উত্থাপনের পর অধিকতর পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য শিক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে পাঠানো হয়। কমিটির সুপারিশকৃত আকারে বিল দুটি পাস হয়। রাষ্ট্রপতির অনুমোদনের পর বিল দুটি আইনে পরিণত হবে।বিল পাসের আগে শিক্ষা মন্ত্রী সংসদে বলেন, ‘বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের স্মৃতি সংরক্ষণ ও তার সাহিত্য কর্মের ওপর লেখাপড়া, চর্চা এবং গবেষণা চালাতে একটি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে ‘রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশ আইন-২০১৬’ নামের এই বিলটি আনা হয়েছে। সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে এই বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠিত হবে। যেখানে রবীন্দ্রনাথের দর্শন ও বিশ্ব সংস্কৃতি চর্চা হবে।

 

Post MIddle

‘শুধু তাই নয়, সেখানে কলা, সঙ্গীত, নৃত্য, চারুকলা, সমাজ বিজ্ঞান, কৃষি, সমবায়, আইন, ব্যবসা প্রশাসন এবং বিজ্ঞান ও প্রকৌশলী প্রযুক্তি ফ্যাকাল্টি থাকবে।’ এই বিশ্ববিদ্যালয়ে অন্যান্য পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের মতো একটি বৈধ কাঠামো থাকবে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

 

পরবর্তী বিল পাসের সময়ে মন্ত্রী বলেন, ‘তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিশেষত বিজ্ঞান, প্রকৌশল ও প্রযুক্তির ক্ষেত্রে অগ্রসরমান বিশ্বের সঙ্গে সঙ্গতি রক্ষায় বাংলাদেশে উচ্চ শিক্ষা ও গবেষণার সুযোগ সৃষ্টি, আধুনিক জ্ঞান চর্চা বিশেষ করে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির উপর পঠন-পাঠন ও গবেষণা কার্যক্রম পরিচালনা, নতুন প্রযুক্তি উদ্ভাবন ও ডিজিটাল বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার গতিকে তরান্বিত করতে গাজীপুর জেলায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল ইউনিভার্সিটি, বাংলাদেশ নামে একটি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল ইউনিভার্সিটি, বাংলাদেশ আইন-২০১৬ উত্থাপন করা হয়েছে।’

 

শিক্ষা ও গবেষণাধর্মী এই বিশ্ববিদ্যালয় বিভিন্ন ধরনের তাত্ত্বিক ও প্রয়োগিক গবেষণা বিশেষ গুরুত্ব পাবে। গাজীপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের অবকাঠামো নির্মাণের কাজ শুরু হবে।

 

 

পছন্দের আরো পোস্ট