বাগেরহাটের সহস্রাধিক শিক্ষক ঈদ বোনাস বঞ্চিত

বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জ উপজেলা স্কুল কলেজ মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের দেড় সহস্রাধিক শিক্ষক কর্মচারী তাদের ঈদ বোনাস উত্তোলন করতে পারেনি। আর এ কারনে অনেক শিক্ষক কর্মচারীর পরিবার ঈদ আনন্দ থেকে বঞ্চিত হবে। মাউশি থেকে ঈদ বোনাস ছাড়ে দেরি হওয়ায় এ বিড়াম্বনায় পড়তে হয়েছে তাদের।

 

Post MIddle

উৎসবভাতা জমা ও উত্তোলনের শেষ দিন ৩০ জুন । ঐদিন বৃহস্পতিবার বিলের অর্ডার সিট রুপালী ব্যাংকে পৌঁছে । একদিকে বিল জমার দেয়ার শেষ দিন ও অপরদিকে ব্যাংকের সময়সীমা আড়াইটা পর্যন্ত নির্ধারিত থাকায় অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান তড়িঘড়ি বিল জমা দিতে পারলেও বোনাস উত্তোলন করতে পারেনি। আবার অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এ স্বল্প সময়ে তাদের বিল জমা করতে পারেনি।

 

শত শত শিক্ষক তাদের বোনাস উত্তোলন করতে না পেরে ফিরে গেছেন। মোরেলগঞ্জ এসবি আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবু সালেহ ও এইচভি এস হাজী নূরউদ্দিন দাখিল মাদ্রাসার সুপার আব্দুল লতিফ জানান, তারা তড়িঘরি বিল জমা দিতে পারলেও উত্তোলন করতে না পেরে খালি হাতে তাদের বাড়ি ফিরতে হয়েছে। তাছাড়াও এসব শিক্ষক কর্মচারীরা জুন মাসেরও বেতনভাতা পায়নি। রূপালী ব্যাংক কর্তৃপক্ষ জানায়, সময় স্বপ্লতার কারনে শিক্ষক কর্মচারীদের উৎসব ভাতা প্রদানে অন্তরায় ছিল।##

পছন্দের আরো পোস্ট